প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

  ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২১

নতুন ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা উ. কোরিয়ার

যুক্তরাষ্ট্র ও জাপানের কঠোর প্রতিক্রিয়া

উত্তর কোরিয়া একটি নতুন দূরপাল্লার ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে। ক্ষেপণাস্ত্রটি জাপানের অনেক অংশে আঘাত হানতে সক্ষম। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম কেসিএনএ গতকাল সোমবার এ তথ্য জানায়। ক্ষেপণাস্ত্রটি ১ হাজার ৫০০ কিলোমিটার বা ৯৩০ মাইল দূরের লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম। পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে অচলাবস্থা দীর্ঘায়িত হওয়ার মধ্যেই এই পরীক্ষা চালানো হয়েছে। খবর বিবিসির।

কেসিএনএ জানিয়েছে, এই ক্ষেপণাস্ত্র জাতীয় নিরাপত্তার সুরক্ষায় আরও বেশি নির্ভরযোগ্য হয়ে উঠবে আর শত্রু বাহিনীর বিরুদ্ধে সামরিক বাহিনীর মনোবল বাড়াবে।

সপ্তাহান্তে নতুন দূরপাল্লার যে ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া, তার ছবি প্রকাশ করেছে দেশটির রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম। জাতিসংঘ ও যুক্তরাষ্ট্রের কঠোর নিষেধাজ্ঞার মধ্যে থেকেও উত্তর কোরিয়া ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালাল। এর মধ্য দিয়ে এ বিষয় ইঙ্গিত করে, খাদ্যের ঘাটতি ও অর্থনৈতিক সংকটে থাকা সত্ত্বেও উত্তর কোরিয়া অস্ত্র তৈরি করতে সক্ষম। নতুন ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়ে উত্তর কোরিয়া জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের কোনো প্রস্তাব লঙ্ঘন করেনি। তবে দেশটি অতীতে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের প্রস্তাব লঙ্ঘন করে অনেক নিষিদ্ধ অস্ত্রের পরীক্ষা চালিয়ে কঠোর নিষেধাজ্ঞায় রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্র তার প্রতিক্রিয়ায় বলেছে, উত্তর কোরিয়ার ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালানোর মধ্য দিয়ে এ বিষয় সামনে আসে যে দেশটি তার সামরিক কর্মসূচির ওপর গুরুত্ব দেওয়া অব্যাহত রেখেছে। উত্তর কোরিয়া এখনো তার প্রতিবেশী ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের জন্য হুমকি হিসেবে রয়ে গেছে। যুক্তরাষ্ট্র জানায়, তারা তাদের মিত্র দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানকে রক্ষার প্রতিশ্রুতিতে অনড় অবস্থানে রয়েছে।

উত্তর কোরিয়া নতুন ধরনের দীর্ঘ পাল্লার ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালানোয় কঠোর সমালোচনা করেছে মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগ পেন্টাগন। পিয়ংইয়ং-কে ওই অঞ্চলের হুমকি উল্লেখ করে পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে বলে জানিয়েছে মার্কিন সামরিক বাহিনী।

এক বিবৃতিতে ওই অঞ্চলের তাদের মিত্রদের সুরক্ষা দেওয়ারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছে পেন্টাগন। পেন্টাগনের ইন্দো প্যাসিফিক কমান্ডের জারি করা বিবৃতিতে বলা হয়, ‘আমরা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি। এ বিষয়ে আমাদের মিত্র ও অংশীদারদের সঙ্গে আলোচনা হচ্ছে’। এদিকে ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের সফল পরীক্ষা চালানোয় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিবেশী দেশ জাপান। ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা না করার বিষয়ে উত্তর কোরিয়ার ওপর জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্রের চেয়ে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রকে বড় হুমকি হিসেবে বিবেচনা করা হয়। উত্তর কোরিয়া সবশেষ গত মার্চ মাসে এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালায়, যার পরিপ্রেক্ষিতে যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়া তীব্র প্রতিক্রিয়া জানায়।

উত্তর কোরিয়া দীর্ঘদিন থেকেই অভিযোগ করে আসছে যুক্তরাষ্ট্র ও দক্ষিণ কোরিয়া পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে শত্রুতামূল নীতি বজায় রেখেছে। ২০১৯ সালের পর থেকে স্থগিত রয়েছে পিয়ংইয়ং ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার পারমাণবিক আলোচনা।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close