reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ২২ মে, ২০২৪

বিএনপি যাদের বহিষ্কার করেছে, তারাই এখন উপজেলা চেয়ারম্যান

প্রতীকী ছবি

চলমান ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদের দ্বিতীয় ধাপের ভোটে চেয়ারম্যান পদে বিএনপির বহিষ্কৃত ছয়জন বিজয়ী হয়েছেন। মঙ্গলবার (২১ মে) রাতে বেসরকারিভাবে তাদের বিজয়ী ঘোষণা করা হয়েছে। এ ধাপে অনুষ্ঠিত ১৫৬টির মধ্যে ২৭টি উপজেলায় দলটির সাবেক নেতারা চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। বিজয়ীদের অধিকাংশই আওয়ামী লীগ নেতা।

দলীয়ভাবে বিএনপি জাতীয় নির্বাচনের মতোই চলমান উপজেলা নির্বাচন বর্জন করেছে। তবে কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত অমান্য করে এবার উপজেলা নির্বাচন করছেন বিএনপির কয়েকজন নেতা। দ্বিতীয় ধাপে উপজেলায় চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ ও নারী) পদে ভোট করায় স্থানীয় পর্যায়ের ৬৯ জনকে বহিষ্কার করেছে বিএনপি। দল থেকে বহিষ্কৃত হয়ে তারা নির্বাচন করেন।

নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলা পরিষদে চেয়ারম্যান পদে দোয়াত-কলম প্রতীকে বিজয়ী হয়েছেন বিএনপি থেকে বহিষ্কৃত নেতা রিয়াদ আরফান সরকার রানা। নাটোরের বাঘাতিপাড়ায় চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন উপজেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক জাহাঙ্গীর হোসেন মানিক। কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলায় উপজেলা বিএনপির সাবেক সদস্য সাফায়েত আজিজ রাজু, সিলেটের গোয়াইনঘাট উপজেলায় জেলা বিএনপির সাবেক কোষাধ্যক্ষ শাহ আলম স্বপন, হবিগঞ্জের নবীগঞ্জে উপজেলা বিএনপির সাবেক প্রথম যুগ্ম আহ্বায়ক মজিবুর রহমান সেফু, নাইক্ষ্যংছড়িতে তোফাইল আহমদ বিজয়ী হয়েছেন।

এর আগে প্রথম ধাপের ভোটে সাতজন চেয়ারম্যানসহ বিএনপির বহিষ্কৃত মোট ১০ নেতা বিজয়ী হন।

পিডিএস/এমএইউ

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
বিএনপি,বহিষ্কৃত নেতা,জাহাঙ্গীর হোসেন মানিক,নবীগঞ্জ
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close