বিনোদন প্রতিবেদক

  ১০ মে, ২০২১

এক যুগ পর ফিরেই দুই নাটকে অপূর্ব-তিশা

দীর্ঘ এক যুগেরও বেশি সময় পর আবারও একসঙ্গে কাজ করতে গিয়ে পরপর দুটি নাটকে অভিনয় করেছেন এই দুই জনপ্রিয় অভিনয়শিল্পী জিয়াউল ফারুক অপূর্ব ও নুসরাত ইমরোজ তিশা। কিছুদিন আগে তিশার উপস্থাপনায় একটি অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন অপূর্ব। অনুষ্ঠানটি প্রচার হওয়ার পর থেকেই মূলত অপূর্ব ও তিশাকে আবারও নাটকে দেখার জন্য দর্শক আগ্রহ প্রকাশ করেন। সেখান থেকেই মূলত দুজনকে নিয়ে একসঙ্গে কাজ করার আগ্রহের সৃষ্টি হয় নির্মাতাদের।

প্রথমইে অপূর্ব ও তিশাকে নিয়ে নাটক নির্মাণ করেন মহিদুল মহিম। মহিম তাদের নিয়ে নির্মাণ করেন ‘রক রবীন্দ্র’ নামের একটি নাটক। পরবর্তী সময়ে শিহাব শাহীনের পরিচালনায় অপূর্ব ও তিশা অভিনয় করেন ‘অহং’ নাটকে। এরই মধ্যে দুটি নাটকেরই কাজ শেষ হয়েছে।

------
দীর্ঘদিন পর একসঙ্গে কাজ করা প্রসঙ্গে অপূর্ব বলেন, ‘মাঝখানে এতটা বছর চলে গেছে তিশার সঙ্গে কাজ করতে গিয়ে তার নতুন করে অনুভব হলো। অনুভব হলো সময় এত দ্রুত চলে যায়। এক যুগেরও বেশি সময়ের বিরতির পর কাজ করতে গিয়ে স্বাভাবিকভাবেই পুরোনো দিনের কাজগুলোর কথা, কাজগুলোকে ঘিরে নানা ধরনের স্মৃতি মনে পড়ে। শিহাব ভাইয়ের নাটকটির গল্প যেমন চমৎকার। মহিমের নাটকটিরও গল্প বেশ ভালো। দুটি নাটকেই আমরা দুজন বেশ আন্তরিকতা নিয়ে কাজ করেছি। যদিও করোনার এই ভয়ানক সময়ে আমাদের অনেক সচেতনতার মধ্য দিয়ে কাজ করতে হয়েছে। তবে অহং এবং রক রবীন্দ্র দুটি নাটকই দর্শকের ভালো লাগবে আশা করছি।’

তিশা বলেন, ‘আমি আর অপূর্ব যখন একসঙ্গে কাজ অনেকগুলো নাটক করেছিলাম। সেগুলো দর্শকের কাছে বেশ ভালো লাগা সৃষ্টি করেছিল। দীর্ঘদিন পর দর্শকের ভালোবাসার জন্যই আবারও আমরা একসঙ্গে কাজ করেছি। মাত্র তো কাজ শুরু করেছি। পরিচালকদের যদি আগ্রহ থাকে তবে আগামীতেও আরো অনেক কাজে আমাদের একসঙ্গে দেখা যাবে।’

এদিকে ২০০৬ সালে অপূর্ব ও তিশা প্রথম একসঙ্গে কাজ করেন মোহন খানের রচনায় ও চয়নিকা চৌধুরীর পরিচালনায় ‘শেষ প্রান্তে’ নাটকে। এটি সেই সময় বাংলাদেশ টেলিভিশনে প্রচারিত হয়েছিল।

এরই মধ্যে মুক্তি পেল অপূর্ব অভিনীত শিহাব শাহীন পরিচালিত ‘যদি কিন্তু তব্ওু সিনেমা’টি। তিশা বাংলাদেশের জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিণী ফজিলাতুন্নেসা মুজিবের চরিত্রে অভিনয় করেছেন। তিশার ভাষ্যমতে বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকে অভিনয় করার সুযোগ পাওয়া মানে ইতিহাসের দলিল হয়ে থাকা।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close