রংপুর ব্যুরো

  ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১

সাড়ে পাঁচ ঘণ্টায় ৪৬ কিলোমিটার সাঁতার কাটলেন রাব্বী

বন্যার পানিতে তিস্তা ফিরে পেয়েছে যৌবন। চারদিকে উথাল পাতাল ঢেউ। স্রোত আর ঘূর্ণিপাকে খেলা করছে জলরাশি। সেই তিস্তা নদীতে টানা ৪৬ কিলোমিটার সাঁতরে পাড়ি দিয়েছেন রাব্বী রহমান। এজন্য তিনি সময় নিয়েছেন ৫ ঘণ্টা ৩৮ মিনিট ২৬ সেকেন্ড।

গতকাল সকাল ৯টায় লালমনিরহাটের তিস্তা ব্যারাজ পয়েন্টে সাঁতার প্রতিযোগিতায় অংশ নেন রাব্বী রহমান। সেখান থেকে ৪৬ কিলোমিটার নদীপথ পাড়ি দিয়ে রংপুরের গঙ্গাচড়া শেখ হাসিনা তিস্তা সেতুর মহিপুরে পৌঁছান বগুড়ার দশম শ্রেণি পড়ুয়া এই সাঁতারু।

রাব্বী রহমান গত বছর বাংলা চ্যানেল পাড়ি দিতে ৪০ জন সাঁতারুকে পেছনে ফেলে প্রথম হওয়ার গৌরব অর্জন করেছিলেন। এবার তিস্তা জয়ে আনন্দিত এই কিশোর বলেন, আমার স্বপ্ন বিশ্বসেরা সাঁতারু হওয়ার। এ জন্য নিজেকে তৈরি করতে আমি চেষ্টা করছি। ইচ্ছা আছে বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশের পতাকা উঁচিয়ে ধরার।

মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে রংপুর জেলা প্রশাসন ও জেলা ক্রীড়া অফিসের উদ্যোগে শেখ কামাল তিস্তা সাঁতার প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। এতে বিভিন্ন জেলার ১৫ দক্ষ নারী-পুরুষ সাঁতারু অংশ নেন।

সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত তিস্তা ব্যারাজ থেকে ৪৬ কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে গঙ্গাচড়া শেখ হাসিনা তিস্তা সেতুর মহিপুরপ্রান্তে এসে পৌঁছান সাঁতারুরা। সেখানে তাদের হাজার হাজার মানুষ অভিবাদন জানিয়ে বরণ করে নেয়। এ সময় তিস্তা নদীর দুইপাড়ে ছিল উৎসুক জনতার ভিড়।

পরে প্রতিযোগিতার সমাপনী অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার ও সম্মাননা স্মারক তুলে দেন রংপুর-১ (গঙ্গাচড়া ও আংশিক রসিক) আসনের সংসদ সদস্য মসিউর রহমান রাঙ্গা। এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক আসিব আহসান।

এর আগে সকাল সাড়ে ৮টায় তিস্তা ব্যারাজ পয়েন্টে প্রতিযোগিতার উদ্বোধনী আয়োজন করা হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন রংপুর সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন মিঞা। বিশেষ অতিথি ছিলেন নীলফামারীর ডালিয়া পওর বিভাগের (বাপাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আসফাউদদৌলা, রংপুর বিএডিসির নির্বাহী প্রকৌশলী মিজানুল ইসলাম, রংপুর সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র মাহমুদুর রহমান টিটু। সভাপতিত্ব করে রংপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক গোলাম রব্বানী।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close