পলাশ (নরসিংদী) প্রতিনিধি

  ১৬ জুলাই, ২০২১

কাভার্ড ভ্যান-লেগুনা সংঘর্ষে মা-ছেলেসহ নিহত ৬

নরসিংদীতে মালবাহী কাভার্ড  ভ্যান ও লেগুনার সংর্ঘষে মা-ছেলেসহ ৬ জন নিহত হয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় আহত হয়েছে লেগুনার আরও পাঁচজন যাত্রী। শুক্রবার দুপুরে পাঁচদোনা-ঘোড়াশাল আঞ্চলিক সড়কের চাকশাল নামক স্থানে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা উদ্ধার কাজ চালায়। দুর্ঘটনায় আহতদের উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

দুর্ঘনায় নিহতরা হলেন- লেগুনা চালক আমান মিয়া (৩০), গাজীপুরের কালীগঞ্জের দক্ষিণ সোমগ্রামের মৃত মোফাজ্জল হোসেনের ছেলে চাঁন মিয়া (৫৫), সুনামগঞ্জ জেলার দোহার থানার সাইফুল ইসলামের ছেলে আল-আমিন মিয়া (১০), তার মা ঝর্ণা বেগম (৩০), বেলাব উপজেলার হাফিজুল পাঠান (৪৫) ও আক্তার হোসেন (৫০)।

বিষয়টি নিশ্চিত করেন নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) ইনামুল হক সাগর। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, দুপুর দেড়টার দিকে পাঁচদোনা থেকে ১৫ জন যাত্রী নিয়ে একটি লেগুনা ঘোড়াশালের দিকে যাচ্ছিল। লেগুনাটি চাকশাল এলাকায় পৌঁছানোর পর বিপরীত দিক থেকে আসা মালবাহি একটি কাভার্ডভ্যান নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে লেগুনার সাথে সংর্ঘষ হয়।

এসময় লেগুনাটি উল্টে গিয়ে সড়কের পাশে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই লেগুনা চালকসহ দুজনের মৃত্যু হয়। আহত হয় অন্তত আরো ১০ জন। পরে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে পাঠায়। সেখানে গুরুত্বর আহত এক নারীসহ মৃত্যু হয় আরো তিন জনের। 

নরসিংদী সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক মাহমুদুল কবির আরিফ জানান, এই ঘটনায় আমাদের হাসপাতালে দুই ব্যক্তিকে মৃত অবস্থায় আনা হয়েছিল। আরেকজনের মৃত্যু হয়েছে চিকিৎসাধীন অবস্থায়। অন্যদেরকে এই হাসপাতালে আনা হয়নি। 

নরসিংদীর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) ইনামুল হক সাগর জানান, দুর্ঘটনায় এক শিশুসহ লেগুনার ৬ জন যাত্রী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৫ জন যাত্রী। ঘাতক কাভার্ডভ্যানটি আটক করা হলেও এর চালক পালিয়ে গেছে।

 

পিডিএসও/এসএম শামীম

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
কাভার্ডভ্যান-লেগুনা
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close