সিরাজুল ইসলাম আপন, ভাঙ্গুড়া (পাবনা)

  ১৮ জুলাই, ২০২১

ভাঙ্গুড়ায় গরুর চেয়ে ক্রেতা কম

আনুষ্ঠানিকভাবে কোরবানির পশুর স্থায়ী হাট শুরু হয়েছে। এরইমধ্যে হাটগুলোতে ভরপুরভাবে গরু চলে এসেছে। প্রথম দিন সেভাবে  হাটে তেমন গরু বিক্রি হয়নি বলে জানান বিক্রেতারা। কারণ গরুর তুলনায় হাটে ক্রেতা অনেক কম। আর যেগুলো বিক্রি হয়েছে, তার বেশির ভাগ ছোট ও মাঝারি সাইজের গরু। 

সরেজমিনে অন্তত ২০টি গরু বিক্রি করতে দেখা যায়। যার বেশির ভাগ ৬০ থেকে ৮০ হাজারের মধ্যে। দুই-একটা লাখ টাকার ওপরে। এরমধ্যে একটি গরু ও ২ লাখ টাকার ওপরে বিক্রি করতে দেখা যায়নি। 

শনিবার সারা দিন এমন দৃশ্য ছিল পাবনার ভাঙ্গুড়া উপজেলার শরৎনগর কোরবানির পশুর হাটে। রোববার ভাঙ্গুড়ার শরৎনগর কোরবানির পশুর হাটে প্রায় একই চিত্র দেখা গেছে।

দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আসা বিক্রেতাদের সঙ্গে আলাপকালে তারা জানান, হাটে গরুর তুলনায় বিক্রি এখনো ভরপুর শুরু হয়নি। তবে যেগুলো বিক্রি হচ্ছে, এদের বেশির ভাগই ছোট গরু। অন্য বছরের তুলনায় এবার তারা দাম নিয়ে শঙ্কায় আছেন। তবে আশা করছেন, আজ থেকে সব ধরনের গরু বিক্রি বাড়বে। সেইসঙ্গে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে অন্য বছরের মতো গরু বিক্রি করতে পারবেন।

হাটের ইজারাদার সামছুল হোসেন বলেন, প্রথমদিন ক্রেতারা তেমন আসেননি। তাই বিক্রি কম হয়েছে। আনুমানিক ২০০-এর মতো পশু বিক্রি হয়েছে বলে ধারণা করছি। আশা করি, আজ থেকে ক্রেতার সমাগম বাড়বে। এ ছাড়া আমাদের হাটে সার্বক্ষণিক ক্রেতা-বিক্রেতাকে বিভিন্ন বিষয়ে সতর্ক করছি। স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্ক ব্যবহার এবং হাটের চারপাশে সাবান-পানি দিয়ে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করেছি।

পিডিএসও/হেলাল

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
কোরবানি,পশুর হাট,ভাঙ্গুড়া
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close