প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

  ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২১

ফাটলের পর আগুন!

বিপদ পিছু ছাড়ছেই না আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনের। স্টেশনটি বয়সের কারণে নানা সমস্যায় জর্জরিত। এবার স্টেশনের ব্যাটারি রিচার্জ করার সময় ধোঁয়া দেখা যায়। প্লাস্টিক পোড়া গন্ধও বের হয়। এরপরই হঠাৎ বেজে ওঠে অ্যালার্ম। আন্তর্জাতিক স্পেস স্টেশনের ক্রু জানান, ধোঁয়া দেখা গেছে। সঙ্গে ছিল প্লাস্টিক পোড়ার গন্ধ। রাশিয়ার জেভেজদা মডিউলে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এর আগে চলতি মাসের শুরুতে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে বেশ কয়েকটি বড় ফাটল দেখা দেয়।

রুশ কর্তৃপক্ষ বলছে, আইএসএস কিছু জটিলতার সম্মুখীন হচ্ছে, কারণ এই স্টেশনের যন্ত্রপাতি অনেক পুরোনো, বিকল হওয়ার পথে কিন্তু মেরামতের অযোগ্য। রাশিয়ার ফ্লাইট সিস্টেমের ৮০ শতাংশই মেয়াদোত্তীর্ণ হয়ে গেছে। রাশিয়ার জায়রা কার্গো অংশে ফাটল দেখা গেছে, যেটা সময়ের সঙ্গে সঙ্গে আরো বাড়বে।

১৯৯৮ সালে যুক্তরাষ্ট্র কানাডা জাপান আর ইউরোপের কয়েকটি যৌথ উদ্যোগে তৈরি হয় আইএসএস। ১৫ বছর মেয়াদ ছিল এই স্পেস স্টেশনের। রুশ কর্তৃপক্ষ জানায়, স্টেশনের যে অবস্থা তাতে যে কোনো সময় বড় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। ২০৩০ সালের পর এই স্পেস স্টেশন আর কাজ করার উপযুক্ত থাকবে না।

জুলাই মাসে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে আরেকটি দুর্ঘটনা হয়েছিল। তখন যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে নাউকা মডিউলের জেট কোনো আগাম সতর্কতা ছাড়াই চালু হয়ে যায়, এর ফলে আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশন নাড়া খেয়েছিল।

এর আগে চলতি মাসের শুরুতেই আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে বেশ কয়েকটি বড় ফাটল দেখা দিয়েছে। রাশিয়ার হিউমেন স্পেস ফ্লাইট প্রোগ্রামের প্রকৌশলী ভ্লাদিমির সলভিয়ভ জানান, তড়িঘড়ি ব্যবস্থা নেওয়া না হলে ফাটলগুলো আরো বড় হতে পারে। ছড়িয়ে পড়তে পারে মহাকাশ স্টেশনের অন্য স্থানেও। এমনকি সেই সব জায়গার বিভিন্ন অংশ ভেঙে পড়তে পারে মহাকাশেই, যা মহাকাশে আবর্জনা হয়ে বিপদ ঘটাতে পারে। সূত্র : দ্য পার্ডিয়ান।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close