অনলাইন ডেস্ক
  ১৯ জানুয়ারি, ২০২১

নাভালনির ৩০ দিনের জেল

জার্মানি থেকে দীর্ঘ পাঁচ মাসের চিকিৎসা নিয়ে রোববার রাশিয়ায় ফিরেই গ্রেপ্তার হন বিরোধী নেতা অ্যালেক্সি নাভানলি। এদিন বিমানবন্দর থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায় রাশিয়ার পুলিশ।

খিমকি থানার মধ্যে আদালত স্থাপন করে তার বিরুদ্ধে এই রায় দেওয়া হয়। এই ৩০ দিন মূলত তার বিচারকার্য শুরু হওয়ার আগে তাকে রিমান্ডে রাখা হবে।

জার্মানি থেকে চিকিৎসা নিয়ে দেশে ফেরা নাভানলিকে বহনকারী বিমান রোববার অবতরণ করার কথা ছিল নুকোভ বিমানবন্দরে। সেখানে তার সমর্থকরাও হাজির হয়েছিলেন স্বাগত জানাতে। কিন্তু রাশিয়া সরকার বিমানটিকে মস্কোর শেরেমিতিয়েভো বিমানবন্দরে অবতরণ করায়। সেখান থেকেই নাভালনিকে গ্রেপ্তার করে নিয়ে যায় পুলিশ।

উল্লেখ্য, গেল বছরের আগস্টে সাইবেরিয়ার টমসক শহর থেকে মস্কো যাওয়ার পথে অসুস্থ হয়ে পড়েন অ্যালেক্সি নাভালনি। প্রথমে তাকে সাইবেরিয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তিনি চিকিৎসার জন্য জার্মানিতে যান। তদন্তকারীরা জানান, পুতিনের এই সমালোচককে হত্যার জন্য সোভিয়েত আমলে তৈরি নোভোচিক নার্ভ এজেন্ট নামক বিষ প্রয়োগ করা হয়েছিল। 

জার্মানিতে দীর্ঘ পাঁচ মাস চিকিৎসা নিয়ে পুরোপুরি সুস্থ হয়ে গত বুধবার নাভালনি তার দেশে ফেরার ঘোষণা দেন। এর পরপরই মস্কোর কারা কর্তৃপক্ষ জানায়, দেশে ফেরামাত্র পুতিন সমালোচককে গ্রেপ্তারের জন্য তারা সবকিছু করবে। কারণ জালিয়াতির মামলায় ২০১৪ সালের স্থগিত দণ্ডের শর্ত লঙ্ঘন করেছেন তিনি।

পিডিএসও/হেলাল

অ্যালেক্সি নাভানলি,রাশিয়া,জেল
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close