নিজস্ব প্রতিবেদক

  ১০ মে, ২০২১

পুঁজিবাজার-বিষয়ক মাস্টার্স প্রোগ্রাম চালু করছে বিআইসিএম

পুঁজিবাজারে দক্ষ জনবল গড়ে তোলার লক্ষ্যে বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো এ সংক্রান্ত একটি স্নাতকোত্তর ডিগ্রি প্রোগ্রাম চালু করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ক্যাপিটাল মার্কেট (বিআইসিএম)। দুই বছর মেয়াদি এ প্রোগামের নাম দেওয়া হয়েছে ‘মাস্টার্স অব অ্যাপ্লায়েন্স ফিন্যান্স অ্যান্ড ক্যাপিটাল মার্কেট (এমএএফসিএম)’। চলতি বছরের আগামী জুলাই থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি প্রোগ্রামের পাঠদান কার্যক্রম শুরু হবে।

গতকাল রবিবার রাজধানীর বিআইসিএম কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি প্রোগ্রামটি চালু বিষয়ে এসব তথ্য তুলে ধরেন প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ড. মাহমুদা আক্তার। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিআইসিএমের পরিচালক (শিক্ষা) ড. ওয়াজিদ হাসান শাহ ও পরিচালক (প্রশাসন) নাজমুল সালেহীন এবং জনসংযোগ কর্মকর্তা খালেদা জেসমিন মিথিলা উপস্থিত ছিলেন। এদিকে সংবাদ সম্মেলনে ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে যুক্ত হয়ে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) কমিশনার অধ্যাপক ড. শেখ শামসুদ্দিন আহমেদ।

------
এ সময় শেয়ারবাজার বিষয়ক স্নাতকোত্তর ডিগ্রি প্রোগ্রাম সম্পর্কে নানা দিক তুলে ধরেন প্রতিষ্ঠানটির নির্বাহী প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ড. মাহমুদা আক্তার ও পরিচালক (শিক্ষা) ড. ওয়াজিদ হাসান শাহ।

সংবাদ সম্মেলনে বিআইসিএমের নির্বাহী প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ড. মাহমুদা আক্তার বলেন, ‘মাস্টার্স অব অ্যাপ্লায়েন্স ফিন্যান্স অ্যান্ড ক্যাপিটাল মার্কেট’ এ প্রোগামটি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্তি পেয়েছে। ফলে সফলভাবে প্রোগ্রাম সম্পন্নকারীরা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্টিফিকেট পাবেন। এরই মধ্যে প্রোগ্রামটিতে ভর্তির জন্য আগ্রহীদের আবেদনপত্র আহ্বান করা হয়েছে। আগামী ৩০ মে পর্যন্ত আবেদন গ্রহণ করা হবে। পরবর্তী সময়ে ১১ জুন ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, দুই বছর মেয়াদি এই মাস্টার্স প্রোগ্রামে ৫১ ক্রেডিট, ১৬টি কোর্স ও একটি প্রজেক্ট থাকবে। বিআইসিএমের নিজস্ব শিক্ষকদের পাশাপাশি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, নিয়ন্ত্রক সংস্থার কর্মকর্তা এবং পুঁজিবাজার ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের প্র্যাক্টিশনার্সরা এই কোর্সে ক্লাস নেবেন। শিক্ষার্থীদের তাত্ত্বিক জ্ঞানের পাশাপাশি প্রায়োগিক জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা নেওয়ার সুযোগ থাকবে এই প্রোগ্রামে। মাস্টার্স কোর্সের শিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে ব্লুমবার্গের একটি টার্মিনাল আনার পরিকল্পনা আছে বলেও জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

বিআইসিএমের তথ্যানুসারে, সম্পূর্ণ প্রোগ্রামটির জন্য শিক্ষার্থীদের ব্যয় হবে সোয়া তিন লাখ টাকা। তবে কিছু ক্রেডিট অনেক শিক্ষার্থীর প্রয়োজন নাও হতে পারে। ক্রেডিট কম হলে ব্যয়ও কমবে। অন্যদিকে মুজিববর্ষ উপলক্ষে মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরা প্রযোজ্য ফির ওপর ৫০ শতাংশ ছাড় পাবেন।

আলোচিত কোর্সে ভর্তির জন্য চার বছরের স্নাতক অথবা স্নানকোত্তর ডিগ্রি থাকতে হবে। জিএমএটিতে ন্যূনতম ৫০০ স্কোর অথবা জিআরইতে ন্যূনতম ৩০০ স্কোর থাকলে ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার প্রয়োজন হবে না। এ ছাড়া সিএফএ সোসাইটি, আইসিএবি, আইসিএমএবি, এসিইএ, আইসিএমএ, সিপিএ, সিজিএ ইত্যাদি পেশাদার সংগঠনের সদস্য হলে বা পেশাদার ডিগ্রি থাকলে সরাসরি আলোচিত কোর্সে ভর্তি হওয়া যাবে।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close