ধামরাইয়ে পুলিশ পরিচয়ে ব্যবসায়ীকে অপহরণ, আটক ২

প্রকাশ : ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৮:২০

ধামরাই (ঢাকা) প্রতিনিধি

ঢাকার ধামরাইয়ে পুলিশ লেখা মোটরসাইকেল দিয়ে পুলিশ পরিচয় দিয়ে মো. মনির হোসেন (২০) নামে এক ব্যবসায়ীকে অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার পথে অপহরণ ব্যাক্তির চিৎকার শুনে এলাকাবাসির সহযোগিতাই দুই জনকে আটক করা হয়েছে। রোববার রাত ৯টায় সুতিপাড়া ইউনিয়নের ছোটকালামপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ব্যবসায়ী মনির হোসেন গোপাল কৃষণপুর গ্রামের আওলাদ হোসেনের চেলে।

আটককৃতরা হলেন- ধামরাই উপজেলার সুঙ্গুরচর গ্রামের ইসমাইল হোসেনের ছেলে আজম হোসেন ও মো. রিপন। তবে রিপনের বাবার নাম জানা যায়নি।  এদের মধ্যে কালামপুর পাতালীপাড়া গ্রামের জালাল হোসেনের ছেলে শাহীন পালিয়ে যায়। 

জানা যায়, রোববার রাত সাড়ে ৮টায় কালামপুর বাসস্ট্যান্ডে দোকান বন্ধ করে বাড়ি যাওয়ার সময় পুলিশ লেখা দুটি মোটরসাইকেল নিয়ে আমার রাস্তা গতিরোধ করে। তারা আমাকে বলে এই বেটা গাড়ীতে উঠ, তর নামে মামলা আছে। এর পর আমার সারা শরীর তল্লাশি করে আমার কাছে থাকা ৫০হাজার টাকা ও পচিঁশ হাজার টাকা দামের একটি মোবাইল সেট দোকানের চাবি নিয়ে আমাকে তাদের মোটরসাইকেলের দুইজনের মাঝখানে বসিয়ে কালামপুর গাধাপাড়া দিয়ে নিয়ে যাওয়ার সময় আমাকে মারপিট করে। পরে আমি বুঝতে পারলাম যে ওরা আমাকে অপহরণ করে নিয়ে যাইতেছে। তখন আমি ছোঠকালামপুর মোচরে গেলে একটি দোকানের সামনে বাতির আলো দেখে চিৎকার দেই এরপর এলাকার লোকজন আমার চিৎকার শুনে মোটরসাইকেলসহ তাদের আটক করে। এরপর আমি আমার সব কিছু তাদেও খুলে বলি। পরে এলাকাবাসি আমাকেসহ হানিফ মেম্বারের কাছে নিয়ে যায়। মেম্বার মোটরসাইকেল ও অপহরণ কারীদের আটক করে ধামরাই থানা পুলিশকে জানান। পরে পুলিশ গিয়ে তাদেরকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

এ বিষয়ে আটককারী মহিরুদ্দিন প্রতিদিনের সংবাদকে বলেন, রাত তখন অনুমান ৯টা হবে কখন দুটি পুলিশ লেখা মোটরসাইকেল আমার দোকানের সামনে এলে মোটরসাইকেলের দুইজনের মাঝে বসা ব্যাক্তি চিৎকার দিলে আমরা এলাবাসি মিলে তাদেরকে আটক করি। এরপর মনির হোসেন ছেলেটার কাছে শুনলাম এরা তাকে অপহরণ করে নিয়ে যাইতেছে। পরে আমাদের ওয়ার্ড মেম্বার হানিফের কাছে নিয়ে গেলাম। 

এই বিষয়ে হানিফ মেম্বার বলেন, অপহরণ করে নিয়ে যাওয়ার সময় অপহরণ ব্যাক্তির চিৎকারে এলাকাবসী তাদের আটক করে আমার বাড়িতে নিয়ে আসে। আমি সাথে সাথে ধামরাই থানাকে বিষয়টি অবগত করি। পরে পুলিশ গিয়ে অপহরণকারীদের আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রিপন আহম্মেদ বলেন, এলাকাবাসীর সহযোগীতায় অপহরণকারীর দুইজনকে আজ সকালে হানিফ মেম্বারের বাড়ি থেকে আটক করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।