মান্দা (নওগাঁ) প্রতিনিধি

  ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১

আউশ জমিতে বালাইনাশক দমনের পরামর্শ কৃষি কর্মকর্তার

চলতি আউশ মৌসুমের ফসলে রোগবালাই দমনে সঠিক সময়ে বালাইনাশক প্রয়োগের কথা বলেছেন মান্দা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শায়লা শারমিন।

একান্ত সাক্ষাৎকারে তিনি জানান, যেভাবে বিভিন্ন কোম্পানির কীটনাশক বাজারে সরবরাহ করছেন পাইকারি ও খুচরা দোকানদাররা। এসব ওষুধের গুণগতমান সঠিক আছে কিনা তা পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়া বলা সম্ভব না। অনেক কৃষক ফসল রক্ষায় দোকানদার ও কোম্পানির প্রতিনিধিদের প্রলোভনে ওষুধ বারবার প্রয়োগ করেও ফল পাচ্ছেন না। এতে সেসব কৃষকরা কোম্পানির ওষুধ গুলোকে ভেজাল বা নিম্নমানের বলে গুঞ্জন ছড়াচ্ছেন। আসলে কোন কোম্পানির ওষওধের গুণগত মান কিরূপ তা পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়া বলা সম্ভব নয়। এরপর খুচরা দোকানদার ও কোম্পানির প্রতিনিধিদের প্রলোভনে পড়ে স্বল্পমূল্যের ওষুধ ক্রয় করে সুফল পাচ্ছেন না কৃষক। অনেক কৃষক কীটনাশক প্রয়োগ করে আশানুরূপ ফল না পেয়ে হতাশ হচ্ছেন।  

কৃষি কর্মকর্তারা আরোও বলেন, সঠিক সময়ে সঠিক ওষুধ প্রয়োগ ও সারি করে ধান রোপণ না করায় আলো বাতাসের অভাবে রোগ বালাই বেশি হচ্ছে। দোকানদারদের দ্বারা প্রভাবিত না হয়ে কৃষি অফিসের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে পরামর্শ গ্রহণ করে নিয়ম মেনে ওষুধ প্রয়োগ করা হলে এরকম সমস্যা হবে না বলে মন্তব্য করেন তিনি। 

কৃষি কর্মকর্তা শায়লা শারমিন বলেন, কিছু সংবাদপত্রে দেখলাম "ভেজাল কীটনাশকের বাজার সয়লাব কৃষক দিশেহারা" এমন শিরোনামে  নিউজ প্রকাশ করেছেন। পোকাকে রোগ এবং রোগকে পোকা বানিয়ে আমার সাক্ষাৎকার দিয়েছেন। যদিও পোকা আর রোগ এক না। যা দেখে আমি বিব্রত হয়েছি। এমন বিব্রত সাক্ষাৎকার দেওয়া থেকে বিরত থাকার জন্য সাংবাদিকদের অনুরোধ করছি। পরবর্তীতে নিউজ প্রকাশের আগে সঠিক জেনেশুনে সংবাদ প্রকাশ করার জন্য অনুরোধ করেন এই কর্মকর্তা।

পিডিএসও/এসএমএস

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
মান্দা,নওগাঁ
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close