‘বিএনপি-জামায়াত কখনোই দেশের উন্নয়ন চায় না’

প্রকাশ : ০৭ আগস্ট ২০২০, ১৬:১৫ | আপডেট : ০৭ আগস্ট ২০২০, ১৬:৩৪

দোহার (ঢাকা) প্রতিনিধি

কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসলে দেশের সার্বিক উন্নয়ন হয়। আর বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় আসলে দেশে সন্ত্রাস বৃদ্ধি পায়। বিএনপি-জামায়াত কখনোই এ দেশের উন্নয়ন চায় না। যার কারণে বিভিন্ন সময়ে তারা সন্ত্রাসী কার্যক্রম পরিচালনা করে। বিএনপি জ্বালাও পোড়াও ও মানুষ মারার রাজনীতি করে। কিন্তু আওয়ামী লীগ অসহায় হতদরিদ্র মানুষের ভাগ্যে উন্নয়নে কাজ করে।

শুক্রবার ঢাকার দোহার উপজেলার জয়পাড়ায় বন্যাকবলিত মানুষের মাঝে যুবলীগ কর্তৃক প্রধানমন্ত্রীর খাদ্যসামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন।

নিখিল বলেন, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন জেলায় বন্যা ও নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় দরিদ্র মানুষের পাশে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার নির্দেশে ত্রাণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে। যার ধারাবাহিকতায় আজ আমরা দোহারের বন্যা দুর্গতদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করছি। এটি জননেত্রী শেখ হাসিনার উপহার।

তিনি যুবলীগের নেতাকর্মীর উদ্দেশ্যে বলেন, আপনারা প্রধানমন্ত্রীর এই উপহার অসহায়দের মাঝে সুষ্ঠুভাবে বণ্টন করবেন। এটি নিয়ে কেউ কোনো বিতর্কের জন্ম দিলে কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের সাধারণ মানুষের সেবায় আরও কাজ করতে পারেন এজন্য তিনি সবার কাছে দোয়া চান।

দোহার উপজেলা যুবলীগ সভাপতি আলমাস উদ্দিনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান আকন্দের সঞ্চালনায় এ সময় উপস্থিত ছিলেন—ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুর রহমান, দোহার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলমগীর হোসেন, ঢাকা মহানগর যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, কেন্দ্রীয় যুবলীগ সহসম্পাদক মোয়াজ্জেম হোসেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বাবলু কমিশনার, ঢাকা জেলা যুবলীগ সভাপতি শফিউল আজম খান বারকু, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ সহসভাপতি ফজলুল হক, দোহার উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলী আহসান খোকন, ঢাকা জেলা যুবলীগের সিনিয়র সহসভাপতি সালাউদ্দিন দরানিসহ দোহার, নবাবগঞ্জ যুবলীগ এবং অংঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

পরে দোহার উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের বন্যাকবলিত অসহায় মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করা হয়।

পিডিএসও/এসএম শামীম/হেলাল