reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

পঞ্চম ধাপে পৌরসভা নির্বাচনে বিজয়ী হলেন যারা

ফাইল ছবি

সারা দেশে পঞ্চম ধাপে ২০ জেলার ২৯ পৌরসভায় নির্বাচনে ভোট গণনা শেষে ফলাফল ঘোষণা করা হয়েছে। নির্বাচনী ফলাফলে বেশিরভাগ পৌরসভায় বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থীরা।

রোববার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টায় একযোগে ভোটগ্রহণ হয়। সব কয়টি পৌরসভায় ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোটগ্রহণ করা হয়। বিচ্ছিন্ন কিছু ঘটনার মধ্য দিয়ে নির্বাচন শেষ হয়।

পৌরসভা নির্বাচনে বিজয়ী হলেন-

সিংগাইর পৌরসভা: মানিকগঞ্জের সিংগাইর পৌরসভার নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবু নাঈম বাশার বিজয়ী হয়েছেন। তিনি ভোট পেয়েছেন ১৪ হাজার ৩২২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির মনোনীত প্রার্থী অ্যাডভোকেট খোরশেদ আলম ভূঁইয়া পেয়েছেন ১ হাজার ৭১৯ ভোট।

হবিগঞ্জ পৌরসভা: হবিগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আতাউর রহমান সেলিম বিজয়ী হয়েছেন। ১৩ হাজার ৪৪৩ ভোট পেয়ে তিনি বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হন। সেলিমের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী মিজানুর রহমান মিজান পেয়েছেন ১০ হাজার ৭৯০ ভোট। এছাড়া বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী অ্যাডভোকেট এনামুল হক সেলিম পেয়েছেন ৩ হাজার ২৪২ ভোট।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভা: আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী মিসেস নায়ার কবির পেয়েছেন ২৮ হাজার ৫৫৪ ভোট পেয়ে টানা দুইবার বিজয়ী হলেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মাহমুদুল হক ভূঁইয়া মোবাইল প্রতীকে পেয়েছেন ১৮ হাজার ৩৬১ ভোট। এছাড়া বিএনপি মনোনীত প্রার্থী জহিরুল হক পেয়েছেন ৮ হাজার ১৩২ ভোট, নারকেল গাছ প্রতীকে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী আব্দুল করিম পেয়েছেন ১ হাজার ৪৪৮ ভোট, ইসলামী আন্দোলনের মনোনীত প্রার্থী আব্দুল মালেক হাতপাখা প্রতীকে পেয়েছেন ৯৭২ ভোট এবং ওয়ার্কার্স পার্টির মনোনীত প্রার্থী নজরুল ইসলাম হাতুড়ি প্রতীকে ৩৮৭ ভোট পেয়েছেন।

চাঁদপুরের মতলব পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মো. আওলাদ হোসেন বিজয়ী হয়েছেন। তিনি ২০ হাজার ৯৯৪ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এনামুল হক বাদল (ধানের শীষ) প্রতীকে পেয়েছেন ৯৭৯ ভোট, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রার্থী মো. শফিকুল ইসলাম (হাতপাখা) প্রতীকে পেয়েছেন ৭৫৭ ভোট ও দেওয়ান মহাম্মদ আলাউদ্দিন কবির (লাঙল) প্রতীকে পেয়েছেন ১৯৭ ভোট।

শাহরাস্তি পৌরসভা: শাহরাস্তি পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবদুল লতিফ (নৌকা) প্রতীকে ১২ হাজার ৯৬৫ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. মোস্তফা কামাল (মোবাইল) প্রতীকে পেয়েছেন ৪ হাজার ১৩২ ভোট ও বিএনপি মনোনীত ফারুক হোসেন মিয়াজী (ধনের শীষ) প্রতীকে পেয়েছেন ৩ হাজার ৮শ ৩৫ ভোট।

নাচোল পৌরসভা: চাঁপাইনবাবগঞ্জের নাচোল পৌরসভায় দ্বিতীয় বারের মতো আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকার প্রার্থী আব্দুর রশিদ খাঁন ঝালু বিজয়ী হয়েছেন। তিনি পেয়েছেন ৪ হাজার ৫১২ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) প্রার্থী রেজাউল করিম বাবু চামচ প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ৮৯২ ভোট। এছাড়া বিএনপির বিদ্রোহী (স্বতন্ত্র) আমানুল্লাহ আল মাসুদ রেল ইঞ্জিন প্রতীকে পেয়েছেন ২ হাজার ৭৯১ ভোট এবং বিএনপির মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী মাসউদা আফরোজা হক সুচি পেয়েছেন ২ হাজার ৩১ ভোট।

জয়পুরহাট পৌরসভা: জয়পুরহাট পৌরসভা নির্বাচনে দ্বিতীয় বারের মতো মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক। ২৪ হাজার ৪৯০ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন তিনি। মোস্তাকের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী অধ্যক্ষ শামছুল হক পেয়েছেন ৪ হাজার ১৬১ ভোট। অপর প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী বেদারুল ইসলাম বেদিন পেয়েছেন ৫৫৮ ভোট, আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী হাসিবুল ইসলাম পেয়েছেন ১ হাজার ৫২৫ ভোট এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মনোনীত প্রার্থী ডা. মুহাম্মদ জহুরুল হক পেয়েছেন ৪১২ ভোট।

সৈয়দপুর পৌরসভা: সৈয়দপুর পৌরসভায় প্রথম নারী মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের রাফিকা আকতার জাহান বেবী। তিনি ২৮ হাজার ২৭৮ ভোট পেয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের আলহাজ রশিদুল হক সরকার পেয়েছেন ১০ হাজার ৯৭৫ ভোট।

পঞ্চম ধাপের নির্বাচন শেষে রোববার প্রতিটি জেলা নির্বাচন অফিসার এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

পিডিএসও/এসএম শামীম

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
পৌরসভা নির্বাচন,বিজয়ী
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close