শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি

  ২১ অক্টোবর, ২০২১

এক রাতে তিন হিন্দুবাড়ির খড়ের গাদায় আগুন

ছবি : প্রতিদিনের সংবাদ

শ্রীমঙ্গলে ভূনবীর ইউনিয়নের ভীমশী গ্রামে রাতের আঁধারে একই সময়ে তিনটি বাড়িতে (গরুর খাদ্য) খড়ের গাদায় আগুন ধরিয়ে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার ভীমশী গ্রামের অমর চন্দ্র দাস, অসীম লাল রায়, এবং একই এলাকার মহানন্দ দাশের ছেলে অমর চন্দ্র দাশ এর বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে।

ঘটনাস্থলে গেলে স্থানীয়রা জানান, বুধবার দিবাগত রাতে কোন এক সময় দুস্কৃতিকারীরা পরিকল্পিতভাবে আগুন লাগিয়েছে। তবে এলাকায় হিন্দু-মুসলিম সবার মধ্যে যে সম্প্রীতি রয়েছে তা নষ্ট করতে হিন্দু বাড়ির খড়ের গাদায় আগুন লাগিয়েছে বলে মনে করেন তারা। তবে আগুন লাগানোর ঘটনায় ওই এলাকায় এখন আতঙ্ক বিরাজ করছে।

স্থানীয়রা আরো জানান, রাত আড়াইটার দিকে আগুন লাগার ঘটনায় খবর পেয়ে ৯৯৯ নাম্বারে ফোন করলে' কিছুক্ষণের মধ্যে ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের সাথে নিয়ে শ্রীমঙ্গল থানার (ওসি) শামীম অর রশিদ তালুকদার ঘটনাস্থলে আসেন। পরে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনেন।

খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) সকালে ঘটনাস্থলে যান, শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান ভানুলাল রায়। এসময় সাথে ছিলেন, ভূনবীর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ তালুকদার, স্থানীয় ইউপি সদস্য সুভাষ রায় এবং স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

উপজেলা চেয়ারম্যান ভানুলাল রায় সবাইকে শান্ত থাকার অনুরোধ জানান, পাশাপাশি আগুন লাগানোর ঘটনায় জড়িত দুষ্কৃতিকারীদের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দ্রুত খুঁজে বের করবে হবে আশ্বাস দেন তিনি।

এ ঘটনায় শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ শামীম অর রশীদ তালুকদার জানান, ঘটনাটি আমরা তদন্ত করে দেখছি। তিনি বলেন, মূল ঘটনাটি কি তা তদন্ত শেষে জানানো হবে।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
শ্রীমঙ্গল,৩ হিন্দু বাড়ি,রাতের আঁধার,খড়ের গাদায় আগুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close