লোহাগাড়া (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি

  ২৮ জুলাই, ২০২১

পুলিশের নাম ভাঙিয়ে প্রতারণা, শেষ রক্ষা হলো না নোমানের

চট্টগ্রামের লোহাগাড়ায় পুলিশের নাম ভাঙিয়ে টাকা দাবি করা সেই প্রতারককে আটক করেছে থানা পুলিশ। এসময় তার কাছ থেকে সিম ও মোবাইল সেট জব্দ করা হয়। আটককৃত যুবকের নাম মোঃ নোমান (২০)। সে উপজেলার বড়হাতিয়া ইউনিয়নের চাকফিরানী দুর্লভের পাড়ার আবদুল কুদ্দুসের পুত্র। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে থানার ওসি জাকের হোসাইন মাহমুদ, পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) ওবায়দুল ইসলাম, এসআই পার্থসারথি হাওলাদার ও এসআই সামশুদ্দৌহার নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম চুনতি বাজার থেকে প্রতারক নোমানকে আটক করে। 

পুলিশ সুত্রে জানা যায়, গত ১৯ জুলাই ভোলা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আবুল কালাম আজাদের নামে একটি ফেইক ফেইসবুক আইডি খুলে প্রতারক মোঃ নোমান। তিনি সেখানে তার আইডিতে প্রোপাইল পিকচারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল কালাম আজাদের ছবি ব্যবহার করে। পরে ফেসবুক আইডিতে তার ১৮ বছরের বয়সী একজন কম্পিউটার অপারেটর লাগবে বলে পোস্ট করে। শিক্ষাগত যোগ্যতা এসএসসি ও এইচএসসি পাস হলে হবে। ফেসবুক পোস্ট পেয়ে বড়হাতিয়ার রুদ্র পাড়ার অপু রুদ্রের পুত্র অসীম রুদ্র ওই ফেসবুক ম্যাসেন্জারে অডিও কল দিলে স্যার সম্বোধন করে কথা বললে সে নিজেকে ভোলা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলে নিজেকে পরিচয় দেয়। এক পর্যায়ে বিকাশ নাম্বারে (০১৮৭২০২৫৪১৭) দেওয়ার পর সে তার বিকাশে ৫৫৭৫ টাকা পাঠাতে বলে। তাকে বেশি চাপ প্রয়োগ করলে অসীম রুদ্র বিষয়টি সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ জাকারিয়া রহমান জিকুকে অবহিত করেন। তখন বিষয়টি সাতকানিয়া সার্কেল ভোলা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের সাথে কথা বললে এ নামে তার কোন ফেসবুক আইডি নেই বলে জানান।

লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) জাকের হোসাইন মাহমুদ জানান, কয়েকদিন পুর্বে ভোলা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজাদ স্যারের নাম ভাঙিয়ে বড়হাতিয়ার নোমান নামে এক যুবক একটি ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে। তার আইডির প্রোপাইল পিকচার হিসেবে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার স্যারের ছবি ব্যবহার করে বিভিন্ন জনের কাছ থেকে চাকরি দেওয়ার নাম করে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্ঠা করে। সে কম্পিউটার অপারেটরের চাকরি দেওয়ার নামে ফেসবুকে পোস্ট করে। বড়হাতিয়ার অসীম রুদ্র নামের একজন  চাকরির বিজ্ঞপ্তি দেখে যোগাযোগ করলে তাতে সন্দেহ হলে সাতকানিয়া সার্কেল স্যারের সাথে যোগাযোগ করে। সার্কেল স্যার ভোলা জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার স্যারের সাথে যোগাযোগ করলে এ নামে স্যারের কোনও ফেসবুক আইডি নেই বলে জানান।

তিনি আরও জানান, পুলিশের নাম ভাঙিয়ে প্রতারণা করার দায়ে অসীম রুদ্র বাদী হয়ে নোমাকে আসামি করে লোহাগাড়া থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা দায়ের করেন। গতকাল রাত সাড়ে ৯টার দিকে এসআই পার্থসারথি হাওলাদার ও এসআই সামশুদ্দৌহার নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম চুনতি বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করতে  সক্ষম হই। তার ব্যবহৃত মোবাইল ও সিম জব্দ করি। আটককৃত প্রতারক নোমানকে চট্টগ্রাম আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে থানা সুত্রে জানা গেছে। 

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
লোহাগাড়া,প্রতারণা,আটক,পুলিশ
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close