এম এ মাসুদ, সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা)

  ২০ জানুয়ারি, ২০২১

সুন্দরগঞ্জ পৌরসভায় চত্বর আছে, নেই শাপলা!

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ পৌরসভার মীরগঞ্জ বন্দরে শুধু নামেই শাপলা চত্বর আছে, কিন্তু নেই শাপলা।

পৌরসভার অন্যতম গুরুত্বপুর্ণ ব্যবসা কেন্দ্র মীরগঞ্জ বাজার, যা বন্দর হিসেবে খ্যাত। এ বন্দরে রয়েছে রড, সিমেন্ট, ঢেউটিন, সার, বড় বড় হার্ডওয়ারের পাইকারি ও খুচরা দোকান, রয়েছে ধান-চালের আড়ৎ। এ ছাড়া সপ্তাহের বুধ ও শনিবার বসে এ অঞ্চলের সবচেয়ে বড় হাট, বসে অন্যদিন বাজার।

এলাকাটিতে বাস করে পৌরসভার প্রায় ৩০ শতাংশ লোক। বন্দরে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষের সমাগম হওয়ায় বন্দরের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য পৌরসভার অর্থায়নে মীরগঞ্জ-সোনারায়-হাসানগঞ্জ এবং সুন্দরগঞ্জ-মীরগঞ্জ-চৌধুরানী-রংপুর সড়কের সংযোগস্থলে শাপলা চত্বর নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছিল প্রায় বছর পাঁচেক আগে। সরকারি ওই জায়গা থেকে জনৈক ঘোড়াওয়ালার বাড়ি সরিয়ে দিয়ে ত্রিভুজাকার একটি স্থাপনাও তৈরি করা হয় ওই সময়। কিন্তু দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হলেও শাপলা চত্বরে আর ফুটেনি 'শাপলা।' অপরিচ্ছন্ন রয়েছে ওই চত্বর। চত্বরে চাষ হয়েছে মরিচ, ঝুলছে বিভিন্ন সাইন বোর্ড। দোকানিরা তাদের ক্যাশ মেমোয় লিখছেন 'শাপলা চত্বর'। অথচ নেই কোনো শাপলা। 

নতুন মেয়র আবদুর রশিদ সরকার ডাবলু ও চারবারের নির্বাচিত কাউন্সিলর সামিউল ইসলাম খুব শীঘ্রই শাপলা চত্বরে শাপলা ফুল ফুটিয়ে নান্দনিক করে তুলবেন চত্বরটি—এমন প্রত্যাশা স্থানীয়দের। 

পিডিএসও/হেলাল

সুন্দরগঞ্জ,শাপলা চত্বর,মীরগঞ্জ বন্দর
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close