প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

  ৩০ জুলাই, ২০২১

জলমগ্ন প্রাচীন ইতিহাস!

আমাদের কবি বলেছিলেন, ডুব ডুব ডুব রূপসাগরে আমার মন! আর এখন ডুব ডুব ডুব সাগরনিম্নে জাদুঘর। এই প্রথম গ্রিসে সাগরের পানির নিচে আস্ত এক মিউজিয়ামের সন্ধান পাওয়া গেছে। এতে জানা যাচ্ছে, সাগরের নিছে পানিতে ডোবা প্রাচীন ইতিহাসের কথা। ইজিয়ান সাগরের স্বচ্ছ নীলাভ জলরাশির নিচেই জমজমাট জাদুঘর। সাগরের নিচে ছড়িয়ে ছিটিয়ে অসংখ্য জিনিস। রয়েছে ডুবে যাওয়া জাহাজের ধ্বংসাবশেষ।

রয়েছে ২ হাজার ৫০০ বছরের পুরোনো মদের পিপে। যত্নের সঙ্গে সব সাজিয়ে রাখা হয়েছে। আর এসব দেখতে ভিড় জমিয়েছে মানুষ। মুখে অক্সিজেন মাস্ক, পরনে ডুবুরির পোশাক। পানির নিচে এই আয়োজন দেখতে ভিড় করছেন অনেকেই। এ হলো গ্রিসের প্রথম পানির নিচের জাদুঘর। দেশটির অ্যালোনিসোস দ্বীপে ইজিয়ান সাগরের স্বচ্ছ পানির নিচে এই জাদুঘর বানানো হয়েছে। গত বছরই আনুষ্ঠানিকভাবে জাদুঘরটি চালু হয়েছিল। বাদ সাধল করোনা। দর্শনার্থীদের সমাগম বন্ধ রাখা হলো। এ বছর অবশেষে সর্বসাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হলো এই জাদুঘরের দরজা।

পানির নিচের আয়োজন দেখতে যারা আসছেন তাদের মধ্যে একজনের বক্তব্য এক বিশেষ ও অনন্য ধাঁচের মিউজিয়াম। ডাইভিং ও প্রত্নতত্ত্বের অপূর্ব সমন্বয়। মনে হবে, যেন ইতিহাসে ডুব দেওয়া হলো। তবে সাগরের তলদেশের এ জগতে ঘুরে আসতে বাড়তি অর্থ গুনতে হবে দর্শনার্থীদের। সেখানে যেতে প্রতিবার দিতে হবে ৯৫ ইউরো বা ১১০ ডলার। সাধারণ স্কুবা ডাইভিংয়ের চেয়ে এ ব্যয় প্রায় ৫০ শতাংশ বেশি। এই জল-জাদুঘরে ঘুরে বেড়ানোর সময় দর্শনার্থীদের সাহায্য করার জন্য থাকবেন পেশাদার গাইড। সঙ্গে থাকবেন একজন প্রত্নতত্ত্ববিদ। তিনি সাগর ও সাগরে অভিযানসংক্রান্ত নানা প্রাচীন জিনিসের সঙ্গে দর্শনার্থীদের পরিচয় করিয়ে দেবেন। সূত্র জিনিউজ

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close