ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন

চট্টগ্রাম ও রংপুরে ১৮ লাখ শিশু খাবে ক্যাপসুল

প্রকাশ : ০২ অক্টোবর ২০২০, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

চট্টগ্রাম মহানগর ও জেলার ১৫ উপজেলাতে ১৩ লাখ ২০ হাজার ও রংপুরের ৮ উপজেলায় সাড়ে ৩ লাখ এবং রসিকে সোয়া লাখের বেশি শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। ব্যুরোর পাঠানো খবর

চট্টগ্রাম : আগামী ৪ থেকে ১৭ অক্টোবর পর্যন্ত ১৪ দিনব্যাপী চট্টগ্রামসহ সারা দেশে ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন শুরু হবে। এ সময় ৬ মাস থেকে ৫৯ মাস বয়সি শিশুদের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা সেলিম আখতার চৌধুরী জানান, চসিকের ব্যবস্থাপনায় নগরের ৫ লাখ ৩৩ হাজারের বেশি শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। এর মধ্যে ৬ থেকে ১১ মাসের ৮১ হাজার ৫০০ নীল রঙের, ১২ থেকে ৫৯ মাসের ৪ লাখ ৫২ হাজার শিশুকে লাল রঙের ক্যাপসুল খাওয়ানোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এদিকে জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, চট্টগ্রাম ১৫ উপজেলায় ২০০টি ইউনিয়নের ৬০০টি ওয়ার্ডে, ১৫টি স্থায়ী কেন্দ্র ১৫টি অস্থায়ী কেন্দ্র ও ৪ হাজার ৮০০টি অস্থায়ী কেন্দ্রে সর্বমোট ৭ লাখ ৮৭ হাজার ২৩৩ জন শিশুকে একটি করে ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। এর মধ্যে ৬ থেকে ১১ মাস বয়সি ৮৮ হাজার ৭১৩ জন শিশুকে একটি করে নীল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সি ৬ লাখ ৯৮ হাজার ৫২০ জন শিশুকে একটি করে লাল রঙের ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে।

রংপুর : রংপুরের ৮ উপজেলায় আগামী রোববার থেকে সাড়ে ৩ লাখের বেশি এবং রসিকে সোয়া লাখের বেশি শিশুকে ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। পক্ষকালব্যাপী জাতীয় ভিটামিন ‘এ’ প্লাস ক্যাম্পেইন বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য তুলে ধরে প্রেস ব্রিফিং করেছে সিভিল সার্জন রংপুর। গতকাল বৃহস্পতিবার সিভিল সার্জনের হলরুমে এ প্রেস ব্রিফিং করেন সিভিল সার্জন ডা. হিরম্ব কুমার রায়। সিভিল সার্জন প্রেস ব্রিফিংয়ে জানান, ৪ অক্টোবর ২০২০ থেকে ১৭ অক্টোবর ২০২০ পর্যন্ত পক্ষকালব্যাপী জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন চলবে। এই সময়ে ৬ থেকে ১১ মাস বয়সি সব শিশুকে একটি করে নীল রঙের (১ লাখ আইইউ) এবং ১২ থেকে ৫৯ মাস বয়সের সব শিশুকে একটি করে লাল রঙের (২ লাখ আইইউ) ভিটামিন ‘এ’ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে। এবারে ৬ থেকে ১১ মাস বয়সি ৩৯ হাজার ৪০৬ জন শিশু এবং ১২ থেকে ৫৯ বযসি ৩ লাখ ১৯ হাজার ৪৬৫ জন শিশুকে রংপুর জেলায় ‘এ’ প্লাস ভিটামিন খাওয়ানোর লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

 

"