reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ২৪ জুন, ২০২১

রুমমেটকে ভিডিও কল দেয়ার পর তরুণীর আত্মহত্যা!

প্রতীকী ছবি

রাজধানীর গুলবাগে রুবিনা ইয়াসমিন নদী (২১) নামে এক তরুণী তার রুমমেটকে ভিডিও কল দেওয়ার পরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।  

বুধবার তাকে অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত রুবিনা বরগুনা বেতাগী উপজেলার রফিকুল ইসলাম বাদলের মেয়ে। তার বাবা পুলিশে কর্মরত। বর্তমানে শাজাহানপুর গুলবাগে একটি বাসায় কয়েকজন মিলে সাবলেট থাকতেন। তিনি একটি বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করতেন।

নদীকে হাসপাতালে নিয়ে আসা রুমমেট মারিয়াম খানম জানান, তারা দুজন বাসায় সাবলেট ভাড়া থাকেন। তারা দুজনই বনশ্রী এলাকায় আঞ্জার বোরকা হাউজে চাকরি করেন। আজ সে কাজে গেলেও নদী কাজে যায়নি।

বিকেল ৩টার দিকে নদী তাকে ভিডিও কল দেয় এবং বাসায় আসতে বলে। কিছুক্ষণ পর ভিডিও কলে রেখেই নদী ফ্যানের সঙ্গে নিজের ওড়না দিয়ে গলায় ফাঁস দেয়। পরে তিনি বাসায় গিয়ে ঝুলন্ত অবস্থা থেকে নামিয়ে হাসপাতালে নিয়ে যান।

মারিয়াম আরো জানান, দুই বছর আগে সম্পর্ক করে সামিউল নামে একটি ছেলেকে বিয়ে করে নদী। নদী পরিবার এ বিয়েতে সম্মতি দেয় না। এবং কিছুদিন পরেই ডিভোর্স হয়ে যায়। এর পর থেকে নদীর পরিবারের সঙ্গে তেমন সম্পর্ক ছিল না। সব সময় খিটখিটে মেজাজ নিয়ে থাকতো।

ঢাকা মেডিক্যালের পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ  (ইন্সপেক্টর) বাচ্চু মিয়া জানান, দুইজন মেয়ে নদীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। পরে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। যারা তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসছে তাদের দাবি সে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

ঘটনাটি শাজাহানপুর থানাকে অবহিত করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আত্মহত্যা,ভিডিও কল
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close