অনলাইন ডেস্ক
  ২৬ জানুয়ারি, ২০২১

২ সুন্দরীর কাজই ছিলো ব্ল্যাকমেইল করে টাকা হাতানো

প্রতীকী ছবি

মোবাইলে অশ্লীল ভিডিওধারণসহ নানা উপায়ে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা আদায় করাই ছিলো এই দুই নারীর কাজ। রাজধানী ঢাকার  উত্তরা পূর্ব থানা এলাকা থেকে ২ নারী ব্ল্যাকমেইলারসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা গুলশান বিভাগের অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও মাদক নিয়ন্ত্রণ টিম। গ্রেপ্তারকৃতরা হলো-আবিদা সুলতানা তন্নি (২২), আফরোজা আসাদ ওরফে কনা (৩৬) এবং মাসুম খাঁন (৩৬)।

মঙ্গলবার  এ তথ্য জানায় ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

এ বিষয়ে গোয়েন্দা গুলশান বিভাগের সহকারী পুলিশ কমিশনার (এএসপি) মোঃ মাহবুবুল আলম বলেন, সোমবার উত্তরা পূর্ব থানার ৪ নং সেক্টর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা সংঘবদ্ধ চাঁদাবাজ চক্রের সক্রিয় সদস্য। তারা টার্গেটকৃত ব্যক্তিকে ব্ল্যাকমেইল করে চাঁদাবাজি করতো। তারা প্রথমে কোন ব্যক্তিকে টার্গেট ও ফোন নম্বর সংগ্রহ করতো। এরপর প্রেমের অভিনয়ের মাধ্যমে নির্ধারিত স্থানে নিয়ে গিয়ে চাঁদাবাজ চক্রের মহিলা সদস্যদের সাথে বিভিন্ন অশ্লীল ছবি ও ভিডিও ধারণ করতো। ধারণকৃত ছবি ও ভিডিও দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করে ভুক্তভোগীর কাছ থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিতো। এই চক্রের সদস্যরাই কেউ প্রেমের অভিনয় করতো, কেউ সাংবাদিক, কেউ পুলিশ অফিসার সেজে আবার কখনও চাকরি দেয়ার নাম করে ব্ল্যাকমেইলের মাধ্যমে চাঁদা আদায় করতো। তারা প্রতারণা ও চাঁদাবাজির টোপ হিসেবে গ্রেপ্তারকৃত সুন্দরী আবিদা সুলতানা তন্নিকে ব্যবহার করতো।

আরও পড়ুন : প্রতিদিনের সংবাদে লোক নিয়োগ

এই গোয়েন্দা কর্মকর্তা আরো বলেন, এমন ভুক্তভোগী এক ব্যক্তির অভিযোগের প্রেক্ষিতে ২৪ জানুয়ারি, ২০২১ রাজধানীর খিলক্ষেত থানায় একটি মামলা রুজু হয়। মামলার প্রেক্ষিতে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়। চক্রটির পলাতক অন্যান্য সদস্যদের গ্রেপ্তার চেষ্টা অব্যাহত আছে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

ব্ল্যাকমেইল,টাকা হাতানো
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close