ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

  ১৩ অক্টোবর, ২০২১

স্কুলছাত্রী অপহরণ ঘটনার মূলহোতাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর

কিশোরী শিক্ষার্থী অপহরণ ঘটনার মূলহোতা জসীম উদ্দিনকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে র‌্যাব

ব্রাহ্মণবাড়িয়া মধ্যপাড়া থেকে কিশোরী শিক্ষার্থী অপহরণ ঘটনার মূলহোতা জসীম উদ্দিনকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে র‌্যাব। মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) রাতে তাকে হস্তান্তর করা হয়। 

গত সোমবার রাতে র‌্যাব সদস্যরা রাজধানীর বাড্ডা এলাকা থেকে বখাটে জসিমকে গ্রেপ্তার করেন। তিনি সদর উপজেলার মৈন্দ গ্রামের ধন মিয়ার ছেলে। 

পুলিশ জানায়, প্রবাস ফেরত জসিম উদ্দিন দীর্ঘদিন ধরে মেয়েটিকে স্কুলে ও কোচিংয়ে যাতায়াতের পথে উত্ত্যক্ত করে আসছিলেন। তাকে প্রেমের প্রস্তাবও দেন। কিন্তু এতে রাজি না হওয়ায় পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী গেল শনিবার দুপুরে স্কুল শেষে বাসায় যাওয়ার পথে জসিম ও তার সহযোগী ইরফান এবং আশিক ওই ছাত্রীকে টানাহ্যাঁচড়া করে প্রাইভেটকারে তুলে নিয়ে যান। ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম, গণমাধ্যমে প্রকাশ ও এলাকায় জানাজানি হওয়ায় জসিম ছাত্রীকে রাতে ছেড়ে দিয়ে পালিয়ে যান। পরে তিনি রাজধানীর বাড্ডায় তার এক স্বজনের বাসায় আত্মগোপন করেন। অপহরণে ব্যবহৃত প্রাইভেটকারটি জসিম তার এক আত্মীয়ের কাছ থেকে ভাড়া নিয়েছিলেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানা পরিদর্শক (অপারেশন) সোহরাব আল হোসাইন বলেন, অপহরণে জড়িত অন্যদের ধরতে অভিযান চালানো হচ্ছে। বিজ্ঞ আদালত বরাবর গ্রেপ্তার আসামির বিরুদ্ধে রিমান্ড আবেদন করা হবে। 

প্রসঙ্গত, অপহরণ ঘটনায় ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। এখন পর্যন্ত ঘটনার মূলহোতা জসীম উদ্দিন ও তার ভাই কাউসার মিয়াকে গ্রেপ্তার করা হয়।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
ব্রাহ্মণবাড়িয়া,অপহরণ,কিশোরী
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close