নিজস্ব প্রতিবেদক

  ০৯ মে, ২০২২

ছুটি শেষে পোশাক কারখানা চালু

এবারের ঈদুল ফিতরে শ্রমিকদের যাত্রাপথের ভোগান্তি এড়াতে আগে থেকেই ছুটি দেয় অধিকাংশ পোশাক কারখানা। এ ক্ষেত্রে কোনো কোনো কারখানার শ্রমিকরা এক সপ্তাহ থেকে ১০ দিনের বেশি সময় পর্যন্ত ছুটি পেয়েছেন। ঈদের ছুটি শেষে শনিবার (৭ মে) থেকে খুলতে শুরু করেছে তৈরি পোশাকশিল্প কারখানা। ইতোমধ্যে কাজে যোগ দিয়েছেন অধিকাংশ শ্রমিক। তবে অনেক শ্রমিক বাড়তি ছুটি পাওয়ায় এখনো কর্মস্থলের বাইরে রয়েছেন। আবার অনেক কারখানাও শনিবার থেকে খুলছে। খাতসংশ্লিষ্টদের মতে, রবিবার থেকে পুরোদমে কারখানায় কাজ শুরু হচ্ছে। দু-এক দিনের মধ্যেই সব শ্রমিক কাজে যোগ দেবেন বলে জানান তারা।

তৈরি পোশাকশিল্প মালিক ও রপ্তানিকারক সমিতির (বিজিএমইএ) পরিচালক মহিউদ্দিন রুবেল জানান, ঈদের ছুটি শেষে শনিবার থেকে অধিকাংশ পোশাক কারখানায় কাজ শুরু হয়েছে। অনেক শিল্পপ্রতিষ্ঠান শ্রমিকদের ছুটি বেশি দিয়েছিল, সেগুলোতে রবিবার (গতকাল) থেকে কাজ শুরু হতে পারে। একই কথা জানান বাংলাদেশ নিটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন বা বিকেএমইএর সিনিয়র সহসভাপতি ফজলে শামীম এহসান। তিনি বলেন, প্রতি বছরই ঈদযাত্রায় ভোগান্তিতে পড়েন পোশাকশ্রমিকরা। তাদের কথা মাথায় রেখেই এবার কারখানা মালিকরা বোনাস-বেতন পরিশোধ করে আগে থেকেই ছুটি দিতে থাকেন। এতে সড়ক-মহাসড়কেও কোনো সমস্যা দেখা যায়নি। আমাদের অনেক গার্মেন্টস ১০ থেকে ১৫ দিন পর্যন্ত ছুটি দিয়েছে শ্রমিকদের। ছুটির পর শনিবার কিছু গার্মেন্টসে উৎপাদন শুরু হয়েছে। আগামী দু-এক দিনের মধ্যে সব কারখানায় কাজ শুরু হবে বলে আশা করছি।

এদিকে ঈদের আগে পোশাকশ্রমিকদের বেতন-ভাতা ও বকেয়া বেতন পরিশোধে দফায় দফায় বৈঠকে মিলিত হয় সরকার, বিজিএমইএ, বিকেএমইএ ও শ্রমিক সংগঠনের নেতারা। সবার ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বেতন-বোনাস নিয়েই ঈদ করেছেন শ্রমিকরা। পোশাক কারখানায় বেতন-সংক্রান্ত বিষয়ে মনিটরিংয়ে প্রথম থেকেই তদারকিতে ছিল শিল্প পুলিশ। বিজিএমইএ-বিকেএমইএর মতে, সদস্যভুক্ত শতভাগ কারখানায় বেতন-বোনাস হয়েছে এবারের ঈদে।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close