উদ্বোধনেই শেষ ঝিনাইদহের ‘কৃষক বাজার’ কার্যক্রম

প্রকাশ : ১২ আগস্ট ২০২০, ০০:০০

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

নিরাপদ সবজি সরাসরি গ্রাহকদের কাছে পৌঁছে দিতে ও কৃষকের উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করতে কৃষি বিপণন অধিদফতর সারা দেশে ‘কৃষক বাজার’ চালু করে। এরই অংশ হিসেবে ঝিনাইদহ শহরের নতুন হাটখোলায় গত ২৮ জুলাই উদ্বোধন করা হয় কৃষক বাজার। জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের সহযোগিতায় এ বাজারের সার্বিক কার্যক্রম বাস্তবায়ন করবে জেলা কৃষি বিপণন অধিদফতর। ওই দিন ফিতা কেটে বাজারের উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক।

তাদের দেওয়া তথ্য মতে, সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকার কৃষক প্রতি সোম ও মঙ্গলবার সকাল ৭টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত তাদের জমিতে উৎপাদিত সবজি কৃষক বাজারে সরাসরি গ্রাহকদের কাছে বিক্রি করবে। কিন্তু উদ্বোধনের পর থেকে আর এক দিনও ‘কৃষক বাজার’ চালু হয়নি। প্রতি সোম ও মঙ্গলবার বাজার হওয়ার কথা থাকলেও সংশ্লিষ্টদের দায়িত্বে অবহেলার কারণে বাজারে কৃষক আসছেন না বলে অভিযোগ করেছেন অনেকে।

নতুন হাটখোলার বাজার ঠিকাদার মোকাদ্দেস হোসেন বলেন, ওই দিন উদ্বোধনের পর আর এক দিনও বাজার চালু হয়নি। বাজারে কোনো কৃষক আসেনি বা বাজার চালুর বিষয়ে কোনো কর্মকান্ড চোখে পড়েনি।

এলাকার সচেতন মহল বলেন, জেলা মার্কেটিং অফিসার গোলাম মারুফ খানের দায়িত্বে থাকলেও কার অবহেলার কারণে আলোর মুখ দেখেনি সরকারের মহতি এই উদ্যোগ। ভবিষ্যতে স্থানীয় অবকাঠামো নির্মাণ করে কৃষক বাজার চালুর কথা ভাবছে সরকার।

এ ব্যাপারে জেলা মার্কেটিং অফিসার গোলাম মারুফ খান ঈদ আর ধান চাষের দোহায় দিয়ে বলেন, ঈদের কারণে বাজারে কৃষক আসায় কিছুটা সমস্যা হয়েছে। এছাড়াও কৃষক এখন চাষে ব্যস্ত রয়েছে। তাছাড়া সবজির উৎপাদন এখন কম তাই বাজারে কৃষক আসছে না। কয়েক দিনের মধ্যে চালু করা হবে।

 

"