কুমিল্লা প্রতিনিধি

  ২৬ নভেম্বর, ২০২১

খুনিদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন, গ্রেপ্তার আরো ১

কুমিল্লায় সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর সৈয়দ মো. সোহেলসহ দুজনকে খুনের ঘটনায় আসামিদের গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি জানানো হয়েছে। কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. মনিরুল হক সাক্কুর নেতৃত্বে গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় কুমিল্লা প্রেস ক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এদিকে, বৃহস্পতিবার বিকালে মামলার এজাহারভুক্ত ৯ নম্বর আসামি সংরাইশ এলাকার মঞ্জিল মিয়ার ছেলে মাসুমকে চান্দিনা উপজেলা এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। মানববন্ধনে মেয়র সাক্কু বলেন, ‘কুমিল্লার ইতিহাসে এমন ন্যক্কারজনক ঘটনা আগে কখনো ঘটেনি, আমরা সিটি করপোরেশনের সব কাউন্সিলরসহ নগরবাসী এক হয়েছি। খুনিদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।’

এসময় আরো বক্তব্য দেন কাউন্সিলর জমির উদ্দিন খান জম্পি, মঞ্জুর কাদের মনি, মাসুদুর রহমান মাসুদসহ আরো অনেকে। পরে বিচারের দাবিতে কুমিল্লা জেলা প্রশাসক ও জেলা পুলিশ সুপার বরাবর স্মারকলিপি দেওয়া হয়।

এদিকে, কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য আ ক ম বাহা উদ্দিন বাহার বৃহস্পতিবার দুপুরে নিহত কাউন্সিলর সোহেলের বাড়িতে ও একই ঘটনায় আহতদের দেখতে ও চিকিৎসার খবর নিতে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে যান। এসময় তিনি সাংবাদিকদের বলেন, কুমিল্লায় এমন বর্বরোচিত হত্যাকা-ের নেপথ্যে যারা রয়েছে তাদের গ্রেপ্তার করে উপযুক্ত শাস্তি দিতে হবে। তিনি নিহত কাউন্সিলর সোহেলের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান ও পুলিশ প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে আরো বলেন, সঠিক অস্ত্র উদ্ধার ও আসামিদের দ্রুত গ্রেপ্তার করুন।

মঙ্গলবার রাতে নিহত কাউন্সিলরের ছোট ভাই সৈয়দ মো. রুমন বাদী হয়ে কোতোয়ালি মডেল থানায় হত্যা মামলা করেন। রাতে নগরীর কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে আসামি সুমনকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

গত ২২ নভেম্বর বিকালে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ১৭ নম্বর ওর্য়াডের কাউন্সিলর সৈয়দ মো. সোহেল ও তার সহযোগী হরিপদ সাহাকে পাথুরিয়াপাড়া নিজ কার্যালয়ে গুলি করে হত্যা করা হয়। এসময় গুলিবিদ্ধ হন আরো পাঁচজন।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close