reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ২৭ মে, ২০২২

পুরুষ সেজে চাচিকে বিয়ে করলেন তরুণী!

ছবি : সংগৃহীত

পুরুষ সেজে দূর সম্পর্কের এক চাচির (১৯) সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন ২২ বছর বয়সী এক তরুণী। পরে ঢাকায় গিয়ে বিয়ে করেন দুজন। বিয়ের ১০ দিন পর বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। গোদাগাড়ী উপজেলার মাদারপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

বৃহস্পতিবার (২৬ মে) রাতে তারা নিজ গ্রাম গোদাগাড়ীতে ফিরে আসে। শুক্রবার সকালে বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। এরপর দুপুরে পুলিশ তাদের থানায় নিয়ে যায়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, পুরুষ সাজার পর ওই তরুণী নিজের নাম রাখেন ফাহিম। ওই তরুণীর সাত মাস আগে বিবাহবিচ্ছেদ হয়। তার দেড় বছর বয়সী একটি কন্যাসন্তানও রয়েছে। হঠাৎ তিনি নিজের মধ্যে পরিবর্তন আনেন। নিজেকে পুরুষ হিসেবে ঘোষণা দিয়ে ছেলেদের প্যান্ট-শার্ট পরতে শুরু করেন। চুলও ছেলেদের মতো ছোট করে রাখেন।

এরপর ১৯ বছর বয়সী দূর সম্পর্কের চাচির সঙ্গে গড়ে তোলেন প্রেমের সম্পর্ক। প্রেমের টানে চাচি নিজের স্বামীর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ ঘটান। তার কোনো সন্তান নেই। এরপর কথিত ফাহিম ও চাচি ঢাকায় পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করেন। তারপর দুজনে ঢাকায় এক আত্মীয়ের বাড়িতে গিয়ে থাকতে শুরু করেন।

এ ঘটনায় ফাহিমের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় জিডি করা হয়। আর ফাহিমের চাচির পরিবার দুজনকে কৌশলে বাড়িতে আনার চেষ্টা করে। বৃহস্পতিবার রাতে তারা দুজন বাড়ি ফেরেন।

শুক্রবার সকালে ফাহিম আসলেই পুরুষ হয়েছে কি না তা নিয়ে বিতর্ক ওঠে। এ সময় পরিবারের সদস্যরা ফাহিমের প্যান্ট খুলে একটি নকল পুরুষাঙ্গ উদ্ধার করেন।

স্বজনরা জানিয়েছেন, তারা দুজনে ঢাকায় এক আত্মীয়ের বাড়িতে উঠেছিলেন। ঢাকায় গিয়ে বিয়ে করার দাবিও করেছেন তারা।

দূর সম্পর্কের চাচি দাবি করেন, তারা দুজন ঢাকায় গিয়ে বিয়ে করেছেন। তবে বিয়ের কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেননি। বিয়ের কাগজ ফাহিমের কাছে আছে বলে জানান তিনি। তাদের মধ্যে শারীরিক সম্পর্ক হলেও ফাহিম যে নকল পুরুষ সেজেছিলেন, তা তিনি বুঝতে পারেননি।

এ বিষয়ে গোগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মজিবর রহমান বলেন, ‘বিষয়টি আমি শুনেছি। এক মেয়ে ছেলে সেজে দূরসম্পর্কের চাচির সঙ্গে প্রতারণা করেছে। আমি এখন ঢাকায় আছি। এর বেশি কিছু আমি বলতে পারব না।’

গোদাগাড়ী মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম জানান, জিডি থাকায় দুই তরুণীকে শুক্রবার হেফাজতে নিয়ে জেরা করেছে পুলিশ। এক তরুণী নিজেকে পুরুষ দাবি করছিলেন। সেটি আসলে প্রতারণা। তার সঙ্গে ঘর ছেড়ে যাওয়া তরুণী বিষয়টি টের পাননি। এ নিয়ে তার অভিযোগও নেই।

আবার তারা দুজনেই ঢাকায় গিয়ে বিয়ের দাবি করেন। কিন্তু বিয়ের কোনো কাগজ দেখাতে পারেননি। এদের সম্পর্ক কোনো আইনের মধ্যেও পড়ে না। আইনি প্রক্রিয়া শেষে তাদের পরিবারের জিম্মায় দেওয়া হয়েছে বলে ওসি জানান।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
পুরুষ,চাচিকে বিয়ে,তরুণী
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close