ব্রেকিং নিউজ

‘জরিমানাতো দিলাম, এতো কথা আর না শুনি...’

প্রকাশ : ১৯ এপ্রিল ২০২০, ২১:১১

হাজীগঞ্জ(চাঁদপুর) প্রতিনিধি

স্ত্রী, সন্তান নিয়ে বাজারে ঘুরতে এসেছেন। পড়ে গেলেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের সামনে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট করোনা ভাইরাসের মহামারির কথা স্মরণ করে দিয়ে, সচেতনতার লক্ষ্যে শাস্তি সরূপ জরিমানা করলেন। এবং সরকারি নির্দেশনা ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা মেনে চলার অনুরোধ করেন।

উল্টো নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে বুঝাতে আসে, জরিমানা তো দিলাম, এতো কথা আর না শুনি...! এই হলো আমাদের সচেতনতা এবং দায়িত্ববোধ।

রোববার দুপুরে হাজীগঞ্জ বাজারে এমন ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিজেই ইউএনও, হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর নামক ফেসবুক আইডিতে স্ট্যাটাস দেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনএ) বৈশাখী বড়ুয়া। তিনি স্ট্যাটাসে উল্লেখ করেন, "এখনো পুরো পরিবারসহ বাজারে বেড়াতে আসে মানুষ...বুঝানোর আশা ছেড়েই দিলাম। উল্টো আমাদেরকেই বুঝাতে আসে, জরিমানা তো দিলাম, এতো কথা আর না শুনি, এবার ঘুরে বেড়াই.."

চাঁদপুরের হাজীগঞ্জে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সামাজিক দুরত্ব ও সেলফ কোয়ারেন্টাইন এবং লকডাউন নিশ্চিতকরণে উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনএ) বৈশাখী বড়ুয়া।

তিনি হাজীগঞ্জ বাজার, পালিশারা বাজার, সেন্দ্রা বাজার এবং কাশিমপুর বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে ২৭ হাজার টাকা জরিমানা করেন। ওই সময় সেনাবাহিনী, পুলিশ ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, ভ্রাম্যমাণ আদালতের পাশাপাশি হাজীগঞ্জ উপজেলার ১০নং ইউনিয়নস্থ রামগঞ্জ-হাজীগঞ্জ সীমান্তের ডাটরা এলাকার প্রবেশপথ বন্ধ করা হয়। ওই স্থানে ২৪ ঘণ্টা পাহারার জন্য ১২ জন স্বেচ্ছাসেবক নিয়োগ করা হয়েছে। যাতে করে দুই উপজেলার বাসিন্দারা যাতায়াত করতে না পারে।