তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক

  ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১

ব্যাটারি-পারফরম্যান্সে চমক নিয়ে এলো আইফোন ১৩

বহুল প্রত্যাশিত আইফোন ১৩ সামনে আনল মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যাপল। স্থানীয় সময় বুধবার ক্যালিফোর্নিয়ার অ্যাপল পার্কে আইফোন ১৩ ও অ্যাপল ওয়াচ ৭ এর গ্র্যান্ড লঞ্চিং অনুষ্ঠিত হয়। পিংক, ব্লু, মিডনাইট স্টারলেট ছাড়াও এবার পাঁচটি রঙে এসেছে আইফোন ১৩।

কী চমক রয়েছে আইফোনের এই নতুন মডেলে? অবশ্য প্রথম লুকে কেউই পুলকিত হবেন না। কারণ ডিজাইনে খুব বেশি পরিবর্তন আনা হয়নি এতে। অনেকটা আগের অর্থাৎ আইফোন ১২ মডেলের মতোই দেখতে এটি। তবে অ্যাপল জানিয়েছে, ব্যাটারি এবং পারফরম্যান্সের দিক দিয়ে পুরোনো যেকোনো মডেলের চেয়ে উচ্চমানের অবশ্যই। আগের থেকে ৫০ শতাংশ বেশি দ্রুত পারফরম্যান্স দেবে অ্যাপলের নতুন চিপ। পুরোনো সিরিজের থেকে কমপক্ষে আড়াই ঘণ্টা বেশি ব্যাটারি ব্যাকআপ দেবে আইফোন ১৩। অ্যাপল আরো জানায়, আইফোন ১৩ তে থাকছে রিয়ার টুইন ক্যামেরা। প্রসেসর এ-১৫ বায়োনিকের। ডিসপ্লেতেও পরিবর্তন আনা হয়েছে। যা আগের মডেলগুলোর চেয়ে প্রায় ২০ শতাংশ বেশি উজ্জ্বল। নতুন মডেলে থাকছে ৫০০ জিবি স্টোরেজ। সর্বনিম্ন ৬৪ জিবির বদলে ১২৮ জিবি স্টোরেজ করেছে প্রতিষ্ঠানটি। পেছনে থাকছে ১২ মেগাপিক্সেলের দুটি ক্যামেরা। ভিডিও কনটেন্ট তৈরিতেও নতুন আইফোন বেশ সুবিধা নিয়ে এসেছে। ক্যামেরায় দেওয়া হয়েছে সিনেম্যাটিক মোড। এতে ভ্রাম্যমাণ বস্তুকে স্বয়ংক্রিয়ভাবেই ফোকাস করতে পারবে ক্যামেরা। এ-১৫ বায়োনিকের মাধ্যমে ডলবি ভিশন এইচডিআর দিয়ে শুট করা যাবে। ত্রয়ী ক্যামেরা সেটআপে এ-৭৭-এমএম টেলিফটো লেনস থাকছে ত্রি-এক্স অপটিক্যাল জুমে। থাকছে আইপি-৬৮ ধুলো ও পানি প্রতিরোধী। সামনে সিরামিক শিল্ডও রয়েছে। এ ছাড়াও আসছে আইপ্যাড মিনি। যার স্ক্রিন হবে ৮ দশমিক ৩ ইঞ্চি। থাকছে টাচ আইডি। এতে থাকছে ফাইভ-জি ফিচার। এতে ১২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রাওয়াইড ক্যামেরাও থাকছে। আইফোন ১৩ এর সঙ্গে ইয়ারফোন ‘এয়ারপড ৩’ থাকছে। এটি অবশ্য তারহীন ইয়ারফোন। নতুন ঘোষণায় স্মার্ট ঘড়ি ‘অ্যাপল ওয়াচ সিরিজ ৭-ও রয়েছে। ডিভাইসটি নিয়ে প্রযুক্তি পণ্যের ভক্ত ও সমালোচকদের অনেক প্রত্যাশা। আইপি-৬-এক্স সনদের সঙ্গে এই প্রথম কোনো অ্যাপল ঘড়ি বাজারে এসেছে। এতে পাঁচটি নতুন কালার থাকছে। ঘড়িটি পরার পর তার ডিসপ্লের উজ্জ্বলতা ৭০ শতাংশ বেড়ে যাবে। এ ছাড়া নতুন মডেলের আইফোনে এক গিগাবাইটের স্টোরেজ রয়েছে।

অ্যাপল বিশ্লেষক মিং চি কুয়োর বলেন, আইফোন ১৩ প্রো এবং প্রো ম্যাক্সে এক টেরাবাইট পর্যন্ত স্টোরেজ সুবিধা থাকবে। অন্যদিকে আইফোন ১৩ এবং ১৩ মিনিতে থাকবে ১২৮ গিগাবাইট, ২৫৬ গিগাবাইট এবং ৫১২ গিগাবাইট পর্যন্ত স্টোরেজ সুবিধা। কুয়ো জানিয়েছেন, সরবরাহ সংকটের মুখে পড়তে পারে আইফোন ১৩। এসব মডেলের দামেও তারতম্য রয়েছে কিছুটা। আইফোন ১৩ মিনি ৬৯৯ ডলার (বাংলাদেশি মূদ্রায় ৫৯ হাজার ৫৪০ টাকা), আইফোন ১৩ প্রোর দাম ৯৯৯ ডলার (বাংলাদেশি মূদ্রায় ৮৫ হাজার টাকা)। আর আইফোন ১৩ প্রো ম্যাক্সের দাম পড়বে ১ হাজার ৯৯ ডলার (বাংলাদেশি মূদ্রায় ৯৩ হাজার ৬০০ টাকা। তবে বাংলাদেশে দাম আরো বেশি হবে। কারণ স্থানীয় করও যুক্ত হবে। আগামী ২৪ সেপ্টেম্বরে বাজারে পাওয়া যাবে আইফোন ১৩।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close