মাদারীপুর প্রতিনিধি

  ১৩ অক্টোবর, ২০২১

অপহরণের পর হত্যা দুজনের যাবজ্জীবন

মাদারীপুরে ২০০৫ সালে যুবক ইমরান হোসনকে অপহরণের পর হত্যা মামলায় দুজনের যাবজ্জীবন ও দুজনকে খালাস দিয়েছে আদালত। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক নিতাই চন্দ্র সাহা এই রায় দেন। দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন কালকিনি পৌরসভার ঝাউতলা এলাকার এমদাদ সরদারের ছেলে পারভেজ সরদার (২৬) ও বিভাগদী এলাকার আবু বকর সিদ্দিকের ছেলে সজীব সরদার (২৫)।

খালাসপ্রাপ্তরা হলেন উত্তর কৃষ্ণনগর এলাকার কাজেম সরদারের ছেলে আসলাম সরদার (২৮) ও পূর্ব শিকারমঙ্গল এলাকার কুদ্দুস চৌকিদারের ছেলে নয়ন চৌকিদার (২৬)। মামলার এজাহারে বলা হয়, ২০০৫ সালের ২১ মে কালকিনি থানার সামনের বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে নিখোঁজ হন উত্তর কৃষ্ণনগর এলাকার সাঈদ সরদারের ছেলে ইমরান হোসেন সরদার। পরে ২৪ মে এনায়েতনগর ইউনিয়নের সমিতিরহাট লঞ্চঘাট এলাকায় ইমরানের রক্তাক্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় ২৪ মে ইমরানের বাবা সাইদ সরদার অজ্ঞাত আসামিদের নামে কালকিনি থানায় হত্যা মামলা করেন। যাবজ্জীবন দন্ডপ্রাপ্ত দুজনই গ্রেপ্তারের পর জামিন নিয়ে পলাতক রয়েছেন।

মাদারীপুর জজ আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট সিদ্দিকুর রহমান সিং জানান, ঘটনার দিন আসামিরা মোটরসাইকেলে ইমরানকে তুলে নিয়ে গিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে। দীর্ঘ বিচারিক প্রক্রিয়া শেষে বিজ্ঞ আদালত দুজনের যাবজ্জীবন ও দোষ প্রমাণ না হওয়ায় অপর দুই আসামিকে খালাস দেন। এই রায়ে বাদী ও রাষ্ট্রপক্ষ সন্তুষ্ট।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close