চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

  ১২ সেপ্টেম্বর, ২০২১

পদ্মায় কমছে পানি ভাঙছে ঘরবাড়ি

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার আলাতুলি ইউনিয়নের পদ্মায় পানি কমার সঙ্গে সঙ্গে নদী-তীরবর্তী এলাকায় ভাঙন আগ্রাসী রূপ ধারণ করেছে। বাড়িঘর ও ফসলি জমি নদীতে বিলীন হয়ে যাওয়ায় মানুষ দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। গত কয়েক দিনে আলাতুলী ইউনিয়নের শতাধিক বসতবাড়ি, বিপুল পরিমাণ ফসলি জমি ও কমিউনিটি ক্লিনিক নদীগর্ভে বিলিন হয়ে গেছে। ভাঙন ঝুঁকিতে রয়েছে বিভিন্ন স্থাপনা ও ফসলি জমি। এছাড়াও চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলার চরবাগডাঙ্গা ইউনিয়নের গোয়ালডুবী গ্রামের বেশকিছু এলাকা পদ্মা নদীতে তলিয়ে গেছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড বলছে, পদ্মা নদীতে কমছে পানির স্ফীতি। পানির টানে পদ্মা নদী-তীরবর্তী এলাকায় বেড়েছে ভাঙন। পানি কমার সময়ে নদী ভাঙন অনেকটাই স্বাভাবিক। তবে এখন আর নদী ভাঙনের সম্ভাবনা নেই।

নদীতীরের বাসিন্দারা বলছেন, স্রোতের তোড়ে নদী-তীরবর্তী এলাকা দেবে যাচ্ছে। চোখের সামনে এ কদিনে বহু ঘরবাড়ি আজ পদ্মার বুকে।

স্থানীয় আরেক বাসিন্দা রহমত আলী বলেন, আমাদের আত্মীয়স্বজনদের ঘরবাড়ি আগাম সরিয়ে নিয়েছিলাম। গতকাল সেই জমি পদ্মার ভাঙনে শেষ হয়ে গেছে। শুধু অতীত এখানে বাড়ি ছিল। এভাবেই শত শত মানুষ জায়গা-জমি হারিয়ে আজ অসহায় হয়ে পড়েছে পরিবার পরিজন নিয়ে। দ্রুত ওই এলাকায় ভাঙন ঠেকাতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এটাই প্রত্যাশা।

আলাতুলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. কামরুল হাসান কামাল জানান, পদ্মা নদীর পানি কমার সাথে সাথে আবারও ভাঙন শুরু হয়েছে। নতুন করে আলাতুলী ইউপির ৪ নং ওয়ার্ডে গত ২০ দিনে ১৫০ এর অধীক বাড়িসহ একটি মসজিদ নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। নদী ভাঙন রোধে আরও দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা দরকার। তা না হলে সর্বনাশা পদ্মা গিলে খাবে ঘরবাড়ি, গাছপালাসহ সবকিছু।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী ময়েজউদ্দিন জানান, পদ্মা নদীতে কমছে পানির স্ফীতি। নামতে থাকা পানির টানে পদ্মা নদী-তীরবর্তী এলাকায় বেড়েছে ভাঙন। পানি কমার সময়ে নদীভাঙন অনেকটাই স্বাভাবিক। তবে এখন আর নদীভাঙনের সম্ভাবনা নেই। আমাদের পর্যবেক্ষণে আছে। এর আগে গোয়ালডুবিসহ যে কয়েকটি স্থানে ভাঙন দেখা দিয়েছিল এখন সেখানে আর ভাঙছে না।

প্রকৌশলী ময়েজ আরও বলেন, ভাঙনপ্রবণ এলাকাগুলোয় জিও ব্যাগ ফেলা হচ্ছে। ভাঙন ঠেকাতে দিন রাত কাজ চলছে।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close