ব্রেকিং নিউজ

আমতলীতে ৬৭৭৪ জেলে পাবেন ভিজিএফের চাল

প্রকাশ : ২৪ অক্টোবর ২০২০, ০০:০০

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি

গত ১৪ অক্টোবর থেকে শুরু হয়েছে ইলিশ প্রজননের প্রধান মৌসুম। আগামী ৪ নভেম্বর পর্যন্ত টানা ২২ দিন সাগর নদ-নদীতে জেলেদের ইলিশ ধরা বন্ধ থাকবে। এই সময় ইলিশ আহরণ, পরিবহন, মজুদ, বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময় নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এ নির্দেশনা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে নেওয়া হবে আইনানুগ ব্যবস্থা। এদিকে এই সময়ে বেকার জেলেদের মাঝে সরকারের পক্ষ থেকে খাদ্য সহায়তা দেওয়ার সিন্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মাছ ধরা বন্ধ থাকায় বরগুনার আমতলী উপজেলার সাতটি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভার মোট ৬ হাজার ৭৭৪ জন ইলিশ জেলেরা বেকার হয়ে পড়েছেন। তাই এ সকল জেলে পরিবারের মাঝে সরকারের পক্ষ থেকে মানবিক খাদ্য সহায়তা হিসেবে ১৩৫ দশমিক ৪৮০ টন বিশেষ ভিজিএফের চাল বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। আগামী দুই থেকে এক দিনের মধ্যে ২০ কেজি করে প্রতিটি জেলে পরিবারের মাঝে এ চাল বিতরণ করা হবে বলে জানান সংশ্লিষ্ট স্ব-স্ব ইউনিয়নের চেয়ারম্যানরা।

এর মধ্যে গুলিশাখালী ইউনিয়নে ১ হাজার ৬৪০, আঠারোগাছিয়া ইউনিয়নে ৯১৭, কুকুয়া ইউনিয়নে ৬১৮, হলদিয়া ইউনিয়নে ৮২৩, চাওড়া ইউনিয়নে ৬০২, সদর ইউনিয়নে ৩৪১, আড়পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নে ১ হাজার ৩৪১ ও পৌর এলাকায় ৪৯৫ জন জেলের মাঝে খাদ্য সহায়তার ভিজিএফের চাল বিতরণ করা হবে।

উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মাহবুবুর রহমান বলেন, ইলিশ আহরণ নিষিদ্ধ সময়ে কোনো জেলে সাগরে ও নদ-নদীতে মাছ ধরতে নামলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ইউএনও মো. আসাদুজ্জামান মুঠোফোনে বলেন, ইলিশের ডিম ছাড়ার প্রধান মৌসুমে বেকার জেলেদের মাঝে সরকারের পক্ষ থেকে ১৩৫ দশমিক ৪৮০ টন বিশেষ ভিজিএফের চাল খাদ্য সহায়তা হিসেবে প্রদান করা হবে।

 

"