ক্রীড়া ডেস্ক

  ২৬ নভেম্বর, ২০২০

নকআউট পর্বে এক পা হেভিওয়েটদের

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে অঘটনহীন রাত খুব কমই দেখা যায়। তবে পরশু এমন এক রাতেরই দেখা মিলেছে। হেসেখেলে জিতেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, বরুশিয়া ডর্টমুন্ড, বার্সেলোনার মতো সাবেক চ্যাম্পিয়নরা। সহজ জয় পেয়েছে লাৎসিও। হতাশ করেনি পিএসজি, সেভিয়া, জুভেন্টাস ও চেলসিও। তবে তাদের জয় পেতে বেশ বেগ পেতে হয়েছে। মঙ্গলবারের আট ম্যাচের তিনটিরই ফল এসেছে অন্তিম মুহূর্তে। তাতে নকআউট পর্বের টিকিট পেয়ে গেছে সেভিয়া ও চেলসি। রোনালদোর জুভেন্টাসও শেষ ষোলোতে এক পা দিয়ে রেখেছে। আর বাঁচা-মরার ম্যাচে পূর্ণ পয়েন্ট তুলে নিয়ে আসরে টিকে রয়েছে পিএসজি।

নেইমারের গোলে পিএসজির হাসি

------
লাইপজিগের বিপক্ষে কষ্টের জয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ ষোলোয় খেলার আশা বাঁচিয়ে রেখেছে পিএসজি। গ্রুপ পর্বে দুই দলের আগের সাক্ষাতে ২-১ ব্যবধানে হেরেছিল টমাস টুখেলের দল। তবে ফিরতি দেখায় নেইমারের একমাত্র গোলে সেই হারের প্রতিশোধ নিয়েছে পিএসজি।

পরশু রাতে ঘরের মাঠে লাইপজিগকে ১-০ গোলে হারিয়েছে পিএসজি। ফলে চার ম্যাচে দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে টমাস টুখেলের। সমান পয়েন্ট নিয়ে গোল পার্থক্যে তিনে লাইপজিগ। আর গ্রুপের শীর্ষে আছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড।

ম্যাচের একমাত্র গোলটি আসে ১১ মিনিটের সময়। ডি-বক্সে ডি মারিয়া ফাউলের শিকার হলে পেনাল্টি পায় পিএসজি। আর সেখান থেকে সফল স্পট কিকে জয়সূচক একমাত্র গোলটি করেন নেইমার।

মেসিকে ছাড়াই উজ্জ্বল বার্সা

বড় জয়ে নকআউট পর্ব নিশ্চিত করল বার্সেলোনা। লিওনেল মেসি ছাড়াই ডায়নামো কিয়েভকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে কাতালানরা। দুই গোল আর এক অ্যাসিস্টে দলের জয়ে ভূমিকা রেখেছেন মার্টিন ব্রাথওয়েট।

ম্যাচ জিতলেই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে নকআউট পর্ব নিশ্চিতের হাতছানি। প্রতিপক্ষ ডায়নামো কিয়েভকে পেয়ে খুশিই হওয়ার কথা বার্সেলোনার। কিন্তু মেসি ও গ্রিজম্যান তো বটেই, দলের বড় বেশ কিছু তারকা ছাড়া প্রতিপক্ষের মাঠে নেমে এটাও যে বেশ কঠিন ঠেকছিল কাতালান ক্লাবটার। মেসিবিহীন দলটা কেমন করেছে বোঝা গেল ম্যাচ শেষে।

মোরাতায় রক্ষা জুভেন্টাসের

আলভারো মোরাতার শেষ মুহূর্তের গোলে শেষ ষোলোর টিকিট কাটল জুভেন্টাসের। নিজেদের মাঠে ফেরেঙ্কভারোসকে ২-১ গোলে হারাল তুরিনের বুড়িরা। চ্যাম্পিয়নস লিগে ফিরেই গোল করেছেন পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

নিজেদের মাঠ অ্যালিয়াঞ্জ স্টেডিয়াম বলেই হয়তো ফেরেঙ্কভারোসের বিপক্ষে আশায় বুক বেঁধেছিল ইতালিয়ান জায়ান্টরা।

 

এক নজরে ফলাফল

রেনেঁ ১-২ চেলসি

ক্রাসনোদার ১-২ সেভিয়া

লাৎসিও ৩-১ জেনিত

ডটমুন্ড ৩-০ ক্লাব ব্রুজ

 

কিয়েভ ০-৪ বার্সেলোনা

জুভেন্টাস ২-১ ফেরেঙ্কভারোস

পিএসজি ১-০ লাইপজিগ

ম্যানইউ ৪-১ ইস্তানবুল

 

 

"

আরও পড়ুন -
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়