কলকাতা প্রতিনিধি

  ২৪ জানুয়ারি, ২০২১

ভারতের রাজধানী কলকাতায়ও চান মমতা

নয়াদিল্লির পাশাপাশি কলকাতাসহ চার শহরকে পর্যায়ক্রমে ভারতের রাজধানী করার দাবি জানিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পাশাপাশি নেতাজির পরিকল্পিত দেশের যোজনা কমিশন কেন তুলে দেওয়া হলো সে নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। রেড রোডে নেতাজি স্মরণ অনুষ্ঠানে ওই প্রশ্ন তুলেন মমতা। বস্তুত নেতাজির জন্মদিনে একুশের ভোটের মুখে কলকাতার রাজপথে হেঁটে নরেন্দ্র মোদি সরকারকে তীব্র ভাষায় সমালোচনা করেছেন তিনি।

উত্তর কলকাতার শ্যামবাজার পাঁচমাথার মোড় থেকে শাঁখ বাজিয়ে নেতাজি-স্মরণ অনুষ্ঠানের পর মিছিল করে রেড রোডে অনুষ্ঠান মঞ্চে পৌঁছান মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে মমতা দাবি তোলে বলেন, ‘শুধু দিল্লিই কেন দেশের রাজধানী হবে? কলকাতাকেও ভারতের রাজধানী করা হোক। দেশের চার শহরকে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে রাজধানী করা হোক। দক্ষিণ, পূর্ব, উত্তর, উত্তর-পূর্বে একটা করে রাজধানী করা হোক। সংসদের চার অধিবেশন চার জায়গায় করা উচিত।’ পাশাপাশি আরো একবার নেতাজির জন্মদিনকে জাতীয় ছুটি হিসেবে ঘোষণা করার দাবি জানিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেছেন, ‘আজ হোক বা কাল, নেতাজির জন্মদিন ‘জাতীয় ছুটি’ হিসেবে ঘোষণা করতেই হবে।’

------
নেতাজি জয়ন্তীকে ‘পরাক্রম দিবস’ হিসেবে কেন্দ্রীয় ঘোষণার আবার কড়া ভাষায় সমালোচনা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তার কথায়, ‘পরাক্রম দিবস কেন? পরাক্রম মানে কী? আমায় একবার জিজ্ঞেস করতে পারতেন। আচ্ছা, আমায় না হয় ছেড়ে দিন, কোন শব্দ ব্যবহার করা উচিত সেটা সুগত বসুদের জিজ্ঞাসা করতে পারতেন। আমরা এই দিনটি দেশনায়ক দিবস হিসেবে পালন করব।’

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ‘এক নেতা, এক দেশ, এক দল, এর কী ভ্যালুয়েশন রয়েছে? এ কথার মানে কী? একতাই মূলমন্ত্র, তা আমরা মনে করি। নেতাজি কখনো বলেননি দেশকে টুকরো টুকরো করে দাও, ইতিহাস ভুলিয়ে দিলে চলবে না। নেতাজির নাম নিলে হৃদয়ে আবেগের জন্ম হয়। নেতাজিকে উপলব্ধি করতে হয়।’

 

"

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close