আর্জেন্টিনার শেষ সুযোগ

প্রকাশ : ২৬ জুন ২০১৮, ০৮:৫৯

অনলাইন ডেস্ক

রাশিয়া বিশ্বকাপে গ্রুপ সেরা হয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে পা রাখার কথা ছিল আর্জেন্টিনার। কিন্তু জর্জ সাম্পাওলি হয়তো ঘুণাক্ষরেও ভাবেননি এমন কঠিন সমীকরণে সামনে দাঁড়াতে হবে। প্রথম ম্যাচে নবাগত আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ড্র ও দ্বিতীয় ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত হওয়াতে শেষ ষোলোর স্বপ্নটা ফিকে হতে বসেছিল লা আলবিসেলেস্তেদের। তবে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে নাইজেরিয়ার জয়ে নিভু নিভু প্রদীপ শিখায় আশার আলো দেখতে পাচ্ছে দুবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। আজ সেন্ট পিটার্সবার্গে নাইজেরিয়ার বিপক্ষে জয় পেলেই দ্বিতীয় রাউন্ডে যেতে পারবে সাম্পাওলির শিষ্যরা।

অন্যদিকে আইসল্যান্ডকে হারতে হবে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে। প্রথম ম্যাচে ৪-২-৩-১ ফর্মেশনে দল সাজিয়েছিলেন সাম্পাওলি। পরের ম্যাচে তা পরিবর্তন করে দল সাজান ৩-৪-৩ ফর্মেশনে। কিন্তু একটাতেও সফলতা পাননি তিনি। আজ আরেকবার নতুন ফর্মেশনে দেখা যাবে আর্জেন্টিনাকে। সম্ভাব্য ফর্মেশন হতে পারে ৪-৩-৩ বা ৪-৪-২। আর ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে মারাত্মক ভুল করা সমালোচিত গোলরক্ষক উইলি কাবেয়ারোর পরিবর্তে গোলপোস্টের নিচে দেখা যেতে পারে নতুন মুখ ফ্রাঙ্কো আরমানিকে। গত মৌসুমে ঘরোয়া ক্লাব রিভার প্লেটের হয়ে দুর্দান্ত এক মৌসুম কাটিয়েছেন তিনি। তাছাড়া ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে সুযোগ না পাওয়া অভিজ্ঞ দুই খেলোয়াড় অ্যাঙ্গেল ডি মারিয়া ও এভার বানেগার মূল একাদশে জায়গা হতে পারে আজ। সেই সঙ্গে আক্রমণভাগে সার্জিও অ্যাগুয়েরোর পরিবর্তে ভাবা হচ্ছে গঞ্জালো হিগুয়েনকে।

প্রথম ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে লড়াই করে হারলেও আইসল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ে ৩ পয়েন্ট আদায় করে নিয়েছে নাইজেরিয়া। আজকে আর্জেন্টিনার বিপক্ষে জয় বা গোলশূন্য ড্র করলে দ্বিতীয় রাউন্ডে উঠে যাবে সুপার ঈগলরা। আইসল্যান্ডের বিপক্ষে ৩-৫-২ ফর্মেশনে দল সাজিয়েছিলেন কোচ গের্নট রোর। সফলতা পাওয়ায় আজকেও একই কৌশল অবলম্বন করতে পারেন তিনি। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা দলটিতে আপাতত কোনো চোটের সমস্যা নেই। তবে লেফট উইং ব্যাকে ব্রায়ান ইদৌও নাকি টাইরান্নে এবুয়েহিকে খেলাবেন—তা নিয়ে দ্বিধায় আছেন তিনি।

রোর সামনে কঠিন প্রতিপক্ষ। কিন্তু দলের ওপর আস্থা রাখছেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে রোর বলেন, ‘আসরের আগে আমি মনে করেছিলাম, এই বিশ্বকাপে আমরা নতুন কিছু শিখব। আমি মনে করি, আমাদের দলটি ২০২২ বিশ্বকাপের জন্য প্রস্তুত। তবে আমাদের আর্জেন্টিনার বিপক্ষে জয়ের ভালো সুযোগ আছে।’

অন্যদিকে আর্জেন্টিনার আজকে বাঁচা-মরার লড়াই। কারণ, হারলে ২০০২ বিশ্বকাপের পর প্রথমবারের মতো গ্রুপ পর্ব থেকে ঘরে ফিরতে হবে গতবারের ফাইনালিস্টদের। এমনিতে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে বিধ্বস্ত হওয়ায় চারদিক থেকে সমালোচনার ঝড় সামাল দিতে হয়েছে আকাশি-নীলদের। কোচের সঙ্গে খেলোয়াড়দের সম্পর্কের অবনতির এবং সাম্পাওলিকে সরিয়ে বুরোচাগাকে নিয়োগ দেওয়ার গুঞ্জনও শোনা গিয়েছিল। তবে এমন কিছু ঘটেনি। কোচের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়ে মুখ খুলেছেন হাভিয়ের মাশ্চেরানো। নাইজেরিয়ার বিপক্ষে মহারণের আগে এই মিডফিল্ডার বলেন, ‘সাম্পাওলির সঙ্গে আমাদের সম্পর্ক সম্পূর্ণ স্বাভাবিক। কিন্তু আমরা যদি অস্বাচ্ছন্দ্য অনুভব করি, আমরা তা নিয়ে অবশ্যই কথা বলব, অন্যথা আমরা ভণ্ড বলে বিবেচিত হব।’

আর্জেন্টিনার জন্য নাইজেরিয়া চেনা প্রতিপক্ষ। এর আগে বিশ্বকাপে চারবার মুখোমুখি হয়েছে দুই দল। প্রত্যেকবার জয় পেয়েছে আর্জেন্টিনা। গত আসরেও ৩-২ গোলে জিতেছে তারা। বিশ্বকাপে দুই দলের প্রথম সাক্ষাৎ ঘটে ১৯৯৪ যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বকাপে। তবে প্রীতি ম্যাচে নিজেদের শেষ সাক্ষাতে ৪-২ গোলে জিতেছে নাইজেরিয়া।

আর্জেন্টিনাকে আজ জয় পেতে হলে নিজের জাদুর বক্সটা খুলতে হবে লিওনেল মেসির। সেই সঙ্গে জ্বলে উঠতে হবে হিগুয়েন ও দিবালাদের। অন্যদিকে গত ম্যাচে আইসল্যান্ডের বিপক্ষে জোড়া গোল করে বার্তা দিয়ে রেখেছেন আহমেদ মুসা। আজকেও চেনা পরিবেশে স্পটলাইটটা কেড়ে নিতে চাইবেন এই সিএসকে মস্কো ফরওয়ার্ড।

পিডিএসও/হেলাল