কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

  ৩০ নভেম্বর, ২০২২

কুষ্টিয়ায় হত্যা মামলায় ৬ ডাকাতের যাবজ্জীবন 

ছবি : প্রতিদিনের সংবাদ

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে শাজাহান আলী নামের এক ব্যক্তিকে হত্যা মামলায় ৬ ডাকাতকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে মামলা থেকে ৮ আসামিকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়। বুধবার (৩০ নভেম্বর) দুপুরে কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. তাজুল ইসলাম এ রায় দেন।

দন্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার ফিলিপনগর গ্রামের ইব্রাহীম মন্ডলের ছেলে স্বপন, একই এলাকার পান্না মৃধার ছেলে নাহারুল ইসলাম, মৃত শমসের প্রামাণিকের ছেলে মকবুল হোসেন, ওফিল প্রামাণিকের ছেলে শফিকুল ইসলাম, মৃত জলিল প্রামাণিকের ছেলে শাজাহান আলী এবং খলিল প্রামাণিকের ছেলে আজমল হোসেন। তাদের মধ্যে স্বপন, নাহারুল ও মকবুল হোসেন পলাতক।

আদালত সূত্র জানায়, ২০০২ সালের ২৭ এপ্রিল রাত ১০টার দিকে দৌলতপুর উপজেলার ফিলিপনগর গ্রামের শাজাহান আলীর বাড়িতে একদল সশস্ত্র ডাকাত হানা দেয়। এসময় স্বর্ণালংকার, টাকাসহ বিপুল মালামাল লুটে নিয়ে যায়। এতে বাধা দিলে শাজাহানকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করে। এতে ঘটনাস্থলেই তিনি মারা যান। ঘটনার পরদিন নিহত শাজাহান আলীর বড় ছেলে বোরহান উদ্দিন বাপ্পি বাদি হয়ে দৌলতপুর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। দীর্ঘ তদন্ত শেষে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফেরদৌস হোসেন আসামিদের বিরুদ্ধে ২০০৪ সালের ২৪ জানুয়ারি আদালতে প্রতিবেদন দাখিল করেন। সাক্ষ্য প্রমাণ শেষে আদালত এ রায় ঘোষণা করেন।

আদালতের পরিদর্শক মোহাম্মদ আনিসুল ইসলাম জানান, রায় ঘোষণার সময় যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত তিন আলাদতে আসামি উপস্থিত ছিলেন।

পিডিএসও/এমএ

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
কুষ্টিয়া,হত্যা মামলা,ডাকাত,যাবজ্জীবন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close