মামুন হোসাইন, ফরিদগঞ্জ (চাঁদপুর)

  ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২২

ফরিদগঞ্জে ১১০ শিক্ষকের পদশূন্য, প্রাথমিকের পাঠদান ব্যাহত

ফরিদগঞ্জ উপজেলার ১৯০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে ১১০ শিক্ষকের পদ দীর্ঘদিন ধরে শূন্য অবস্থায় পড়ে আছে। এর মধ্যে প্রধান শিক্ষকের ২৪ ও সহকারী শিক্ষকের ৮৬টি পদ খালি। ফলে বিদ্যালয়গুলোর কোমলমতি শিক্ষার্থীদের পাঠদানসহ দৈনন্দিন রুটিন কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

করোনা নিয়ন্ত্রণে আসার পর এবং সম্প্রতি সাপ্তাহিক ছুটি দু’দিন করার ফলে পাঠদানসূচী নতুন করে শ্রেণিবিন্যাস করতে গিয়ে এই সমস্যা আরও তীব্রতর হয়েছে। ফলে নিয়মিত পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে বলে অভিভাবকদের জানান।

সরকার ইতোমধ্যেই শিক্ষক নিয়োগ পক্রিয়া শুরু করলেও তা শেষ হওয়ার পর বিদ্যালয়ে যোগদান করতে আরো কিছুদিন সময় লাগবে। তাছাড়া চলতি বছর ডিসেম্বরের পর পদশূন্যের সংখ্যা আরো বাড়বে জানাগেছে।

সর্বশেষ প্রাপ্ত তালিকা অনুসারে প্রাথমিক পর্যায়ে প্রধান শিক্ষকশূন্য বিদ্যালয়গুলো হলো : বড়গাঁও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভোটাল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সাইসাঙ্গা রেজিস্ট্রার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সাছিয়াখালী হোসেন আলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বালচাটিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,বালিমুড়া রেজিস্ট্রার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,বাসারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বৈচাতলী রেজিস্ট্রার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় পূর্ব জয়শ্রী রেজিস্টার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পূর্ব হাঁসা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ফরিদগঞ্জ বালিকা দক্ষিণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ফিরোজপুর রেজিস্ট্রার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পশ্চিম হর্নি ফজলে আহম্মেদ রেজিস্ট্রার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পশ্চিম চরদুঃখিয়া জনকল্যাণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়,পশ্চিম বিষকাটালি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পশ্চিম লাড়ুয়া সরকারি প্রাথমিক,গল্লাক বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চরবসন্ত সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, দক্ষিণ রামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, নোয়াপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, উত্তর আলোনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কালির বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কেরোয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কড়ৈতলী জুবলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়।

সহকারি শিক্ষক শূন্যপদ বিদ্যালয়গুলো হলো : উত্তর বিষকাটালি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষক ৫জন,বড়ালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষক ৪ জন, ইসলামগঞ্জ সরকারি বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষক ৩ জন, সন্তোষপুর দক্ষিণ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষক ৩ জন,হোগলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় সহকারি শিক্ষক ৩ জনকের পদশূন্য। এছাড়া ১৬টি বিদ্যালয়ে ২জন করে এবং বাকী গুলোতে ১জন করে শিক্ষকের পদশুণ্য রয়েছে।

এ বিষয়ে বিদায়ী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা মো. মনির উজ্জামান জানান, ফরিদগঞ্জ উপজেলার ১৯০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে প্রধান শিক্ষকের ২৪টি ও সহকারী শিক্ষকের ৮৬টি পদ শূন্য আছে। নিয়মতান্ত্রিকভাবে শূন্য পদগুলোর বিষয়ে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট চিঠি দিয়ে অবহিত করা হয়েছে। তাছাড়া শিক্ষকের অভাবে পাঠদান ব্যহত হওয়ার কথা নিশ্চিত করে জানান, নতুন শিক্ষক নিয়োগ সম্পন্ন হলে আশাকরি সহকারি শিক্ষক অচিরেই শূন্য পদ পূরণ হবে

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
ফরিদগঞ্জ,১১০ শিক্ষকের পদশূন্য,প্রাথমিকের পাঠদান ব্যাহত
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close