আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি

  ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১

শিক্ষক শামীম হোসাইন বাঁচতে চান

“মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য” স্রষ্টার এই সুন্দর পৃথিবীতে কেনা বেশি দিন বেঁচে থাকতে চায়। কিন্তু রোগ, দারিদ্রতা মানুষকে বেশি দিন বেঁচে থাকার স্বপ্ন পূরণ হতে দেয় না। অপরিণত বয়সে এই পৃথিবী ছেড়ে অনেককে চলে যেতে হয়। এতে পরিবার-পরিজনের মাঝে নেমে আসে অপূরনীয় ক্ষতি।

বরগুনার আমতলী উপজেলার কুকুয়া ইউনিয়নের পশ্চিম চুনাখালী গ্রামের নিম্নবিত্ত পরিবারের আব্দুল মোতালেব মাতুব্বরের ছেলে পূর্ব চুনাখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মো. শামীম হোসাইনের (৩৯) জীবন থেকে পৃথিবীর আলো নিভে যেতে বসেছে। স্ত্রী সোনিয়া জাহান, ফাহিম হোসাইন(১০) ও মাহিম হোসাইন(৫) নামে তার দুটি পুত্র সন্তান রয়েছে।

শিক্ষক মো. শামীম হোসাইন গত ২০২১ সালে ১৭ মার্চ কিডনি রোগে আক্রান্ত হওয়ার বিষয়টি চিকিৎসকের মাধ্যমে জানতে পারেন। সেই থেকেই তিনি চিকিৎসকদের পরামর্শে ঢাকা কিডনি ফাউন্ডেশনে অধ্যাপক ডা. শামীম আহমেদের তত্ত্বাবোধানে চিকিৎসা নিচ্ছেন। বর্তমানে তার ২টি কিডনিই ড্যামেজ হয়ে পড়েছে। দুটি কিডনির মধ্যে মাত্র ৯% সচল আছে।

এদিকে স্বামীর জীবন বাঁচাতে স্ত্রী সোনিয়া জাহান নিজের একটি কিডনি ডোনেট করতে আগ্রহী হলেও কিডনি ট্রান্সপ্লান্টেশনের জন্য ২০ লক্ষ টাকা প্রয়োজন। যা এই অসহায় শিক্ষক পরিবারের পক্ষে যোগার করা কোনভাবেই সম্ভব না। 

এমনিতেই তার চিকিৎসার ব্যয় বহন করতে গিয়ে সহায় সম্পত্তি বিক্রি করে তারা নিঃস্ব হয়ে গেছে। তাই ঠিকমত ওষুধ ও কিডনি প্রতিস্থাপনের চিকিৎসা নিতে না পারায় দিন দিন তার অবস্থা অবনতির দিকে যাচ্ছে। তাই মানবিক কারণে চিকিৎসা ব্যয়ে আর্থিক সহায়তা চেয়ে সমাজের হৃদয়বান, বিত্তশালী, প্রবাসী, দানশীল ও সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠানের কাছে সাহায্যের আবেদন করেছেন তার স্বজনরা।

সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা- সোনালী ব্যাংক লিঃ আমতলী, বরগুনা শাখা। সঞ্চয়ী হিসাব নাম্বর-৪৩০১১১০০১৬২৫৯ এবং বিকাশ ও প্রয়োজনে- ০১৭১৪২১৮১৯৪।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আমতলী,বরগুনা
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close