নওগাঁ প্রতিনিধি

  ১০ সেপ্টেম্বর, ২০২১

রামেকে গাছ কেটে পাখি হত্যা, নওগাঁয় মানববন্ধন

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (রামেক) চত্ত্বরে গাছ কেটে প্রায় শতাধিক শামুকখোল পাখির আবাসস্থল নষ্ট করে পাখির ছানাকে জবাই করে খাওয়ার প্রতিবাদে নওগাঁয় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় শহরের মুক্তির মোড়ে স্থানীয় সামাজিক সংগঠন একুশে পরিষদ নওগাঁ’র আয়োজনে এ কর্মসূচি পালিত হয়।

একুশে পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট ডিএম আব্দুল বারীর সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন- সংগঠনের উপদেষ্টা বিন আলী পিন্টু, আব্দুস ছাত্তার মন্ডল, অধ্যক্ষ শরিফুল ইসলাম খান, সহ-সাধারণ সম্পাদক নাইস পারভীন, মনোয়ার হোসেন লিটন, শাকিরুল রাসেল, সহ-সভাপতি মুকুল চন্দ্র কবিরাজ, সিদ্দিকুর রহমান, প্রতাপ চন্দ্র সরকার, সাংগঠনিক সম্পাদক বিষ্ণু কুমার দেবনাথ, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) নওগাঁ জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, বক্তারা বলেন, আমাদের পরিবেশের ক্ষতি করে এমন উন্নয়ন মানা যায় না। এসব উন্নয়নের নামে জীববৈচিত্র্য ধ্বংস করলে সাধারণ মানুষ মেনে নিবে না। প্রকৃতি বাঁচানোর জন্য পর্যাপ্ত সবুজায়ন করা হচ্ছে। করোনা মহামারির ঠিক সেই মুহূর্তে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গাছ কেটে পাখিগুলোকে হত্যা করা হয়েছে। এটা অমানবিক কাজ। এভাবে যদি প্রাণ-প্রকৃতি ধ্বংস করার উৎসবে সবাই মেতে ওঠে, তবে নিজেদের অস্তিত্ব সংকটে পড়বে। তাই এই ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবিও করেন তারা।

উল্লেখ্য, রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্বরে নালা নির্মাণ ও গাড়ি রাখার চত্বর তৈরি করার জন্য কর্তৃপক্ষ বন বিভাগের মাধ্যমে ২৭টি গাছ কাটে। গত ৪ সেপ্টেম্বর হাসপাতালের সামনে নালা নির্মাণের জন্য একটি অর্জুনগাছ কাটা হয়। এতে গাছ থেকে পড়ে যায় শামুকখোল পাখির শতাধিক ছানা। বেশিরভাগ ছানা সঙ্গে সঙ্গে মারা যায়। যেগুলো বেঁচে ছিল, সেগুলোর মাংস খাওয়ার জন্য জবাই করে নিয়ে যান নির্মাণশ্রমিক ও রোগীর স্বজনরা।

এ খবর গণমাধ্যমে আসার পরে ফুঁসে ওঠেন পরিবেশবাদীরা। নওগাঁর পরিবেশবাদী বিভিন্ন সংগঠনের সদস্যরা এই ঘটনার প্রতিবাদ জানান। এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার শহরের মুক্তির মোড় নওজোয়ান মাঠের সামনে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

পিডিএসও/এসএম শামীম

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
রামেক,নওগাঁয়,মানববন্ধন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close