প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

  ২৬ নভেম্বর, ২০২১

বলিরেখা ঠেকাতে...

অল্প বয়সেই ত্বকে বলিরেখা কোনোভাবেই মেনে নেওয়ার মতো না। বয়সের ছাপ যদি অনেক আগেই পড়ে যায় তাহলে মুশকিল। কিন্তু অনেকেরই বয়স বাড়ার জন্য বলিরেখা দেখা দেয় তা কিন্তু না। বরং কিছু বদভ্যাসের জন্যে মুখে বলিরেখা দেখা দেয়। অর্থাৎ এসব বদভ্যাস দূর করতে হবে। সেটা কীভাবে? আসুন জেনে নেই।

বিছানায় পিঠ দিয়ে ঘুমান : অনেকে উপুড় হয়ে ঘুমান। এই বদভ্যাসের কারণে মুখে বলিরেখা পড়ে। প্রতিদিন অন্তত আট ঘণ্টার ঘুম প্রয়োজন। কিন্তু ঘুমের সময় কোনো সমস্যা হলে বা হুট করে ঘুম ছুটে গেলে বলিরেখা পড়তে পারে। মূলত প্রতিনিয়ত ঘুমের ব্যাঘাত ঘটলে গাল, কপালের পেশির সংকোচন ঘটে। এতে মুখে স্থায়ী বলিরেখা দেখা দেয়। অনেকে বলেন, পাশ ফিরে ঘুমালে মুখে দাগ বসতে পারে। এতে ত্বকের এলাস্টিসিটি এবং কোলাজেন হারিয়ে যেতে শুরু করে। ফলে স্থায়ী বলিরেখা দেখা দেয়। তাই বিছানায় পিঠ ঠেকিয়ে ঘুমোন।

ঘন ঘন ভ্রু কুঁচকাবেন না : কটাক্ষ করে চাওয়া বা ঘন ঘন বিরক্তিতে ভ্রু কুঁচকানো ঠিক না। এতে কপালে দীর্ঘ বলিরেখা পড়তে পারে। তাই যতটুকু সম্ভব নিজেকে শান্ত রাখুন।

প্রয়োজনের বেশি মুখ পরিষ্কার করবেন না : অনেকে ঘন ঘন মুখ পরিষ্কার করে থাকেন। সাবান ব্যবহারে সচরাচর সাবানের চর্বি দ্রবীভূত হয়। এতে ত্বকের ময়লা দূর হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ত্বকের প্রয়োজনীয় প্রাকৃতিক চর্বিও চলে যেতে পারে। এতে ত্বকে বলিরেখা পড়ে। তাই ত্বকের ধরন বুঝে দিনে একবার কি দুবার ধুয়ে নিন। ঘন ঘন ধুবেন না।

ত্বকে ভিটামিন সি ব্যবহার করুন : ত্বকে ভিটামিন সি ক্যাপসুল বা জেলি ব্যবহার করুন। ভিটামিন সি ত্বকে কোলাজেন উৎপাদনে সাহায্য করে। তাছাড়া অতিবেগুনি রশ্মি থেকেও বাঁচতে সাহায্য করে। তাই নিয়মিত ত্বকে ভিটামিন সি ব্যবহার করতে পারেন।

কফির বদলে কোকো : ডার্ক চকলেট বা কোকো কফির চেয়েও উপাদেয়। বিশেষত ত্বকের যতেœর ক্ষেত্রে চকলেট উপকারী। কফি পান না করে গরম চকলেট খাওয়ার অভ্যাস করুন। চকলেটে বিভিন্ন ধরনের এন্টি অক্সিডেন্ট পাওয়া যায়, যা আপনার ত্বকের জন্য উপকারী।

ত্বকের যত্ন নিন : ত্বকের যত্ন নেওয়ার সাধারণ প্রক্রিয়াগুলো অনুসরণ করুন। বিশেষত রোদে ত্বক বেশিক্ষণ পুড়তে না দেওয়া, ত্বকের ধরন অনুযায়ী যত্ন নেওয়ার অভ্যাস করুন। এতে মুখে বলিরেখা পড়বে না, পড়লেও স্বল্প সামান্য মাত্রায় পড়বে।

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close