reporterঅনলাইন ডেস্ক
  ২৮ জুন, ২০২২

শুদ্ধাচার পুরস্কার পেলেন চার কর্মচারী

ভালো কাজে পুরস্কার মন্দে তিরস্কার প্রতিষ্ঠা করুন: এলজিআরডি মন্ত্রী

কর্মকর্তা-কর্মচারীদের হাতে শুদ্ধাচার পুরস্কার ও সম্মাননা তুলে দেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম। ছবি- প্রতিদিনের সংবাদ

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, ভালো কাজের জন্য পুরস্কার এবং মন্দ কাজের জন্য তিরস্কার এটি সর্বক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত করতে হবে। ভালো কাজের স্বীকৃতি দিলে কর্মস্পৃহা ও উৎসাহ বাড়িয়ে দেয়। তেমনি মন্দ কাজের জন্য শাস্তি দিলে সতর্ক হওয়া এবং নিজেকে সুধরিয়ে নেয়ার সুযোগ পাবে।

রবিবার (২৮ জুন) মন্ত্রণালয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষর ও শুদ্ধাচার পুরস্কার ২০২১-২০২২ প্রদান অনুষ্ঠানে শুদ্ধাচার পুরস্কারের সন্মাননা ও সনদ প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

কর্মক্ষেত্রে সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশ বজায় রাখার আহবান জানিয়ে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন পূরণের জন্য জনপ্রতিনিধি, সরকারি কর্মকর্তা, কৃষক-শ্রমিকসহ সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে ঐকবদ্ধ্য হয়ে কাজ করতে হবে। নিজের উপর অর্পিত দায়িত্ব পালনে সর্বদা অটুট থাকতে হবে। অন্যায়ের কাছে কখনো মাথা নত করা যাবে না। দায়িত্ব পালনে সকলকে অঙ্গীকারাবদ্ধ হতে হবে।

স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব মোহাম্মাদ মেজবাহ্ উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে এ বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং আওতাধীন দপ্তর/ সংস্থার প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে কর্মক্ষেত্রে শুদ্ধাচার চর্চার স্বীকৃতিস্বরূপ স্থানীয় সরকার বিভাগ ও আওতাধীন দপ্তর/সংস্থা হতে পাঁচজন কর্মকর্তা-কর্মচারীকে জাতীয় শুদ্ধাচার ২০২১-২০২২ পুরস্কার দেওয়া হয়।

শুদ্ধাচার পুরস্কার প্রাপ্তরা হলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের আওতাধীন দপ্তর/ সংস্থার প্রধানদের মধ্যে জাতীয় স্থানীয় সরকার ইন্সটিটিউটের মহাপরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) সালেহ আহমদ মোজাফফর, ২য়-৯ম গ্রেডে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব জেসমিন পারভীন, ১০ম-১৬তম গ্রেডে প্রশাসনিক কর্মকর্তা শেখ ইমরান হোসেন এবং ১৭-২০ তম গ্রেডের অফিস সহায়ক সেতু চাকমা।

২০২০-২১ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) বাস্তবায়নে ভালো ফলাফল করায় প্রথম পাঁচটি প্রতিষ্ঠানকে প্রনোদনা প্রদান করা হয়। বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) বাস্তবায়নে প্রথম স্থান অর্জন করে ঢাকা ওয়াসা, দ্বিতীয় স্থানে সিলেট সিটি কর্পোরেশন, স্থানীয় প্রকৌশল অধিদপ্তর তৃতীয়, চট্টগ্রাম ওয়াসা চতুর্থ এবং পঞ্চম স্থানে রয়েছে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তর।

এছাড়া, স্থানীয় সরকার বিভাগের আওতাধীন ৮টি দপ্তর/সংস্থার শীর্ষ কর্মকর্তা ও ১২ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এবং স্থানীয় সরকার বিভাগের সচিব এর মধ্যে আগামী ২০২২-২০২৩ অর্থবছরের বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
ভালো,কাজ,পুরস্কার,মন্দ,তিরস্কার
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close