করোনাকে ভোট দিন!

প্রকাশ : ২১ নভেম্বর ২০২০, ১৬:৩১

অনলাইন ডেস্ক

ভারতের কেরালার কোল্লাম জেলায় গত ১০ অক্টোবর সরকারি হাসপাতালে ভর্তি হতে গিয়ে বিড়ম্বনায় পড়তে হয়েছিল তাকে। ২৪ বছরের তরুণী কিছুতেই তার নাম বলতে পারছেন না। আসলে সমস্যার শুরু গত মার্চ মাসে। কেউ তার নাম জিজ্ঞেস করলেই একেবারে চুপ করে যান তিনি। কিন্তু হাসপাতালে তো কিছু করার নেই। নাম তো বলতেই হবে, তার ওপর আবার করোনাভাইরাস আক্রান্ত হয়ে ভর্তি হতে গিয়েছেন। এই এত বিড়ম্বনার কারণ হলো, ওই তরুণীর নাম ‘করোনা’। তার নাম নিয়ে এমনকি ডাক্তার-নার্সরাও মজা করতে ছাড়েননি।

চিকিৎসকরা মজা করে তাকে বলেছেন, ‘বাবাকে বলুন একটা টিকা উদ্ভাবন করতে।’ যদিও পুরো বিষয়টাই ঘটেছে একেবারেই মজার ছলে। তবে কাউকে নাম বলতে গিয়ে সত্যিই বিড়ম্বনার শিকার হচ্ছেন করোনা। তবে শুধু এটুকুই নয়, করোনা এবার কোল্লাম করপোরেশনের স্থানীয় পৌর নির্বাচনে বিজেপির প্রার্থী হয়ে লড়ছেন। মথিলি ডিভিশনের গোটা এলাকায় বিজেপির পোস্টার পড়েছে তার নামে। ভোট দিন ‘করোনা থমাস’-এর জন্য।

কেন এই করোনা নাম? এক সাক্ষাৎকারে বিজেপি প্রার্থী জানিয়েছেন, ছোটবেলায় এই নাম রেখেছিলেন তার বাবা। ছেলে ও মেয়ে উভয়েরই পরিচিত নাম রাখতে চাননি। তাই ছেলের নাম রেখেছিলেন কোরাল এবং মেয়ের নাম রেখেছিলেন করোনা, যার অর্থ উজ্জ্বলতা। যদিও তিনি হয়তো বুঝতে পারেননি, এভাবে একটি ভাইরাসের জন্য তার মেয়েকে বিড়ম্বনার মুখে পড়তে হবে এতকাল পরে। সংক্রমণের শুরুর দিকে কিছুটা অস্বস্তিতে পড়লেও ওই তরুণী জানান, এখন আর নামের জন্য তেমন অসুবিধা হয় না।

করোনা থমাস এর আগে কোনো দিনই রাজনীতি করেননি। স্বামী জিনু সুরেশ বহুদিন ধরেই বিজেপির সঙ্গে যুক্ত। মথিলি ডিভিশনে নারীদের জন্য সুরক্ষিত সিট থাকার ফলে তিনি স্বামীর কথাতেই এই কাজে নেমেছেন। এই নামই এখন তার জয়ের কারণ হবে বলে আশাবাদী করোনা থমাস। সূত্র : এই সময়।

পিডিএসও/ জিজাক