রংপুর ব্যুরো

  ১০ অক্টোবর, ২০২২

শিক্ষকদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে প্রাণ গেল ছাত্রের

ফাইল ছবি

রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার মদনখালী ইউনিয়নের খেতাবেরপাড়া পল্লী মঙ্গল উচ্চবিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে শিক্ষকদের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে অষ্টম শ্রেণির ছাত্র আকাশ নিহত হয়েছে। চার পুলিশসহ ৩০ জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় স্কুলের সহকারী শিক্ষক আনোয়ারুল ইসলামসহ চার জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। আহতদের পীরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

সোমবার (১০ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে স্কুল প্রাঙ্গণে ঘটনাটি ঘটে।

নিহত আকাশ পীরগঞ্জ উপজেলার চৈত্রকোল অনন্তরামপুর গ্রামের আনোয়ারুল ইসলামের ছেলে। তার বাবা ঢাকায় একটি গার্মেন্টে কাজ করে বলে জানিয়েছেন তার মামা মনসুর আলী। পুলিশ জানিয়েছে, খেতাবেরপাড়া পল্লী মঙ্গল উচ্চবিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে প্রধান শিক্ষক নুরন্নবী গ্রুপের সঙ্গে সহকারী শিক্ষক আনোয়ারুল ইসলাম গ্রুপের মধ্যে সোমবার সকালে প্রথমে বাকবিতণ্ডা হয়। পরে তা সংঘর্ষে রূপ নেয়। দেড় ঘণ্টাব্যাপী চলা সংঘর্ষে দুই পক্ষই লাঠি, বল্লম, ছোড়াসহ বিভিন্ন অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে একে অপরের বিরুদ্ধে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। ওই বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী আকাশ বল্লমের আঘাতে ঘটনাস্থলেই নিহত হয়।

খবর পেয়ে পীরগঞ্জ থানার ওসি আবদুল আউয়ালের নেতৃত্বে পুলিশ ফোর্স ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। এ সময় ওসিসহ পুলিশের ওপর চড়াও হলে ওসি আবদুল আউয়াল, এসআই আকতার ও দুই নারী পুলিশসহ ৩০ জন আহত হন। পরে রংপুর থেকে অতিরিক্ত পুলিশ ফোর্স ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এ বিষয়ে রংপুরের পুলিশ সুপার ফেরদৌস আলী চৌধুরী জানান, স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে তারা পুলিশকেও অবরুদ্ধ করে রাখে। হামলায় ওসি আবদুল আউয়ালসহ চার পুলিশ আহত হন। পরে সার্কেল এএসপির নেতৃত্বে রংপুর থেকে বিপুলসংখ্যক পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছে। এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। তবে ঘটনার জন্য স্কুলের প্রধান শিক্ষক নুরন্নবী ও সহকারী শিক্ষক আনোয়ারুল ইসলাম পরস্পরকে দায়ী করেছেন। তবে সংঘর্ষের ঘটনার বিষয়ে দুজনই কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

ওসি আবদুল আউয়াল জানান, নিহত স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার করে পীরগঞ্জ থানায় আনা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে সহকারী শিক্ষক আনোয়ারুল ইসলামসহ চারজনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
রংপুর,ছাত্র,শিক্ষক,সংঘর্ষ
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close