তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক

  ১০ অক্টোবর, ২০২১

নোকিয়ার নতুন ট্যাবলেট টি২০

নিজেদের প্রথম ট্যাবলেট উন্মোচন করেছে এইচএমডি গ্লোবাল। আট বছর পর এলো নোকিয়া ব্র্যান্ডের ট্যাবলেট ‘নোকিয়া টি২০’। নির্মাতা দলের দাবি, তিনটি দিক থেকে অন্যদের তুলনায় আলাদা হবে ট্যাবলেটটি। দিক তিনটি হলো- দাম, ভিডিও কনফারেন্সিং এবং এন্টারপ্রাইজ সমর্থন। ফোর্বসের প্রতিবেদন বলছে, যুক্তরাজ্যে ট্যাবলেটটির প্রাথমিক দাম ধরা হয়েছে ১৭৯ পাউন্ড। ওই দামে ট্যাবলেটটিতে মিলবে চার গিগাবাইট র‌্যাম, ৬৪ গিগাবাইট স্টোরেজের ওয়াই-ফাই অনলি সুবিধা। বাড়তি ফোর-জি অপশন যোগ করে নিতে হলে খরচ করতে হবে ১৯৯ পাউন্ড। এতে কোনো ফাইভ-জি অপশন নেই। স্টোরেজ চাইলে মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে ৫১২ গিগাবাইট পর্যন্ত বাড়িয়ে নেওয়া যাবে।

দামের দিক থেকে বিবেচনা করলে নোকিয়া টি২০ ট্যাবলেটটি অ্যাপলের আইপ্যাড প্রো-এর সঙ্গে তুলনায় বেশিক্ষণ টিকবে না। নির্মাতা দলেরও লক্ষ্য সেটি ছিল না বলেই উল্লেখ করেছে ফোর্বস। করোনাভাইরাস মহামারি মানুষের সঙ্গে প্রযুক্তির সম্পর্ক অনেকটাই বদলে দিয়েছে। টি২০ কে এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যাতে এটি বাসা থেকে কাজের নানাবিধ চ্যালেঞ্জ সামাল দিতে পারে। টি২০ ভিডিও কলিংয়ে ভিন্ন মাত্রা যোগের চেষ্টা করেছে। ট্যাবলেটটির ৮২০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ক্ষমতাসম্পন্ন ব্যাটারি ব্যবহারকারীকে ডুয়াল মাইক্রোফোন ও পাঁচ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ফেসিং ক্যামেরার মাধ্যমে টানা সাত ঘণ্টা মিটিং চালিয়ে যেতে দেবে। সাশ্রয়ী বাজেটের ট্যাবলেট খুঁজছে এমন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানের কথাও ভোলেনি এইচএমডি গ্লোবাল। নোকিয়া টি২০ ট্যাবলেটে সে বৈশিষ্ট্যও রয়েছে। এতে দেখা যাবে ‘এইচএমডি কানেক্ট প্রো’ ও ‘এইচএমডি এনাবল প্রো’ নামের ব্যবস্থাপনা টুল। ফোর্বস বলছে, ডিভাইসের কর্পোরেট ব্যবস্থাপনায় কাজে আসবে টুলগুলো। অন্য দিকে ‘অ্যান্ড্রয়েড এন্টারপ্রাইজ রেকমেন্ডেড’ ডিভাইস লাইনআপেরও অংশ টি২০। বিক্রিতে সহযোগিতা করবে এ বিষয়টিও। এ ছাড়াও ট্যাবলেটটির সফটওয়্যার প্যাকেজের অংশ হিসেবে রয়েছে ‘প্যারেন্টাল কন্ট্রোল’ এবং ‘কিড স্পেসেস’। নিরাপত্তা আপডেটও মিলবে তিন বছর। এককথায়, নোকিয়া টি২০-তে পাওয়া যাবে ট্যাবলেটের মৌলিক সবকিছুই।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close