চৌদ্দগ্রাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি

  ১১ অক্টোবর, ২০২১

চৌদ্দগ্রামে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতি

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামের বিভিন্ন হাট বাজারগুলোতে সবজিসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যে দাম প্রতিদিন বেড়েই চলছে। এতে সাধারণ ক্রেতাদের ক্রয় ক্ষমতার বাহিরে চলে যাচ্ছে বলে জানায় স্থানীয়রা।

উপজেলার পৌরসভাসহ ১৩টি ইউনিয়নের দৈনিক ও সাপ্তাহিক বাজারগুলো ঘুরে দেখা গেছে, নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম গত কয়েক দিনে চেয়ে গতকাল রবিবার অনেককাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে।

বিক্রেতারা জানায়, গত ৪-৫ দিনের ব্যবধানে কয়েক দফা বেড়েছে জিনিসের দাম। গত কয়েক দিনে আবহাওয়ার বিরুপ আচরনের কারণে শাক সবজির উৎপাদন অনেকটা কম। তাই বাজারে সবজির সংকট থাকায় কিছু অসাধু বিক্রেতা দাম বাড়িয়ে বিক্রি করছে।

অন্যদিকে গত ২-৩ দিনের ব্যবধানে দাম বেড়েছে পেয়াঁজ, কাচা মরিচ, টমেটো, শিম, লাউ, মিষ্টি কুমড়া, গাজর, ধনিয়া পাতা, জিঙ্গা, বরবডি, গোল বেগুন, লম্বা বেগুন ও ডালি কচুর চড়াসহ প্রতিদিনের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের। অপরদিকে শিম ১২০-১৪০ টাকা, টমেটো ১৪০-১৬০ টাকা, পেয়াজ ৪০-৬০ টাকা, কাচা মরিচ ১৬০-১৭০ টাকা, আদা ১৩০-১৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বাজারে দেশীয় বিভিন্ন প্রজাতির মাছ সংকট থাকায় ব্যবসায়িরা পাঙ্গাস মাছ ১২০-১৩০, তেলাপিয়া ১৩০-১৫০ টাকা, রুই ২৮০-৩২০ টাকায় বিক্রি করছে।

চৌদ্দগ্রাম কাচা বাজারের সবজি বিক্রেতা মো. আব্দুল হালিম বলেন, চাষিদের কাছ থেকে বাড়তি দামে শাক সবজি ক্রয় করার কারনে ক্রেতাদের কাছে বাড়তি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে।

মাছ ব্যবসায়ি আলা উদ্দিন বলেন, বাজারে মাছের চাহিদা বেশি থাকায় তাই বিভিন্ন প্রজাতির মাছ বাড়তি দামে বিক্রি করতে হচ্ছে।

নাসিমা বেগম নামে এক নারী ক্রেতা জানান, প্রতিদিন শাক সবজিসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের যে হারে দাম বাড়ছে এতে আমাদের ক্রয় ক্ষমতার বাহিরে চলে যাচ্ছে।

মো. শরিফুল ইসলাম নামের এক ক্রেতা জানান, এভাবে পণ্যের দাম বাড়তে থাকলে আমাদের না খেয়ে থাকতে হবে।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close