ফরিদপুর প্রতিনিধি

  ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২১

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক চান আর্থিক প্রণোদনা

গত ২৫ দিনের বন্যায় ফরিদপুরের ৯ উপজেলার মধ্যে পাঁচটিতে ২ হাজার হেক্টর জমির ফসল পানিতে নিমজ্জিত হয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিশেষ করে পদ্মা, মধুমতি ও আড়িয়াল খার অববাহিকার কৃষকরা এই ক্ষতির মুখে পড়েছেন। এমতাবস্থায় সরকারি প্রণোদনার দাবি জানিয়েছেন ভুক্তভোগী চাষিরা।

ফরিদপুর জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে, চলতি বর্ষা মৌসুমে প্রায় ২ হাজার হেক্টর জমির ফসল তলিয়ে গেছে। এতে আউশ ধান ও রোপা আমন ১ হাজার ৭০০ হেক্টর, সবজি ৭৬ হেক্টর, মরিচ ৫০ হেক্টর, কলাবাগান ২৭ হেক্টরসহ অন্যান্য ফসল রয়েছে।

সদর উপজেলার নর্থ চ্যানেল ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাকুজ্জামান বলেন, ক্ষতির বিষয়টি সংশ্লিষ্ট কৃষি বিভাগকে জানানো হয়েছে, তারা ক্ষয়ক্ষতি নিরূপণ করছেন।

সদরের ডিক্রিরচর ইউপি চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান মিন্টু ফকির বলেন, পদ্মা নদীবেষ্টিত হওয়ায় ইউনিয়নে ফসলের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে।

কৃষকরা যাতে আর্থিক ক্ষতির মুখে না পড়েন সেদিকে নজর দেওয়ার আহ্বান জানান মধুখালী উপজেলা চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলাম।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক ড. হজরত আলী জানান, এবারের বন্যায় জেলার ২ হাজার হেক্টরের বেশি জমির ফসলের ক্ষতি হয়েছে। বন্যার পানি নেমে যাওয়ার পরই কৃষকদের মাসকলাই বীজ প্রণোদনা দেওয়া বলে জানান তিনি।

জেলা প্রশাসক অতুল সরকার বলেন, অধিক ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা তৈরির নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। তাদের আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close