কক্সবাজার থেকে ফিরে...

প্রকাশ : ১৪ আগস্ট ২০২০, ০০:০০

বিনোদন প্রতিবেদক

টানা পাঁচ মাস লকডাউনে প্রায় পুরোটা সময়ই গৃহবন্দি থেকে হাপিয়ে উঠেছিলেন এই প্রজন্মের দর্শকপ্রিয় অভিনেত্রী তাসনিয়া ফারিণ। যে কারণে কোরবানির ঈদের আগে বেশ কয়েকটি ঈদ নাটকের কাজ করলেও করোনা নিয়ে আতঙ্কিত থাকার কারণে শুটিং চলাকালীন ভয়েই ছিলেন তিনি। সেই ভয় ও ক্লান্তি দূর করার জন্যই স্ব-পরিবারে কক্সবাজার থেকে ঘুরে এলেন ফারিণ। তিনি জানান, প্রতি বছরই একবার না একবার কক্সবাজারে যাওয়া হয়ই তার। সেই ধারাবাহিকতায় পরিবারের সঙ্গেই ঘুরে এলেন তিনি। যে কটি দিন ছিলেন বেশ আনন্দ-উচ্ছ্বাসের মধ্যেই সময় কেটেছে তার। তবে কক্সবাজার থেকে ফিরে এসে ফারিণ জানালেন আপাতত নাটকের শুটিংয়ে ফিরছেন না তিনি।

ফারিণ বলেন, ‘ঈদে আমার অভিনীত বেশ কিছু ভালো ভালো গল্পের নাটক প্রচারিত হয়েছে বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে, ইউটিউব চ্যানেলে। সেসব নাটকের জন্য আমি বেশ সাড়া পেয়েছি। একজন অভিনেত্রী হিসেবে নাটকগুলোতে অভিনয়ের কারণে দর্শকের কাছে যে গুডউইলটা তৈরি হয়েছে সেটা এখন নষ্ট করতে চাচ্ছি না আমি। যে কারণে এখন ভালো ভালো গল্পের নাটকেই কাজ করতে চাই। ভালো গল্পের নাটক বলতে আমি বোঝাতে চাচ্ছি, এমন গল্পে কাজ করতে চাই যে গল্পটিতে কাজ না করলে পরে আমার আফসোস করতে হয়। যেহেতু ঈদ উৎসব চলে গেছে, তাই আপাতত একটু সতর্কতা অবলম্বন করে বাসাতেই সময়টা কাটাব।’ এদিকে গেল ঈদে ফারিণ যে নাটকগুলোতে অভিনয়ের জন্য বেশি সাড়া পেয়েছেন সেই তিনটি নাটক হচ্ছে মিজানুর রহমান আরিয়ানের ‘জানবে না কোনো দিন’, কাজল আরেফিন অমির ‘মাস্ক’ ও সঞ্জয় সমাদ্দারের ‘যে শহরে টাকা উড়ে’। ‘জানবে না কোনো দিন’-এ তার বিপরীতে ছিলেন জিয়াউল ফারুক অপূর্ব এবং ‘যে শহরে টাকা উড়ে’ নাটকে তার বিপরীতে ছিলেন মোশাররফ করিম। এদিকে খুব অল্প সময়েই নিজের অভিনয় গুণে দর্শকের কাছে প্রশংসিত হচ্ছেন তাসনিয়া ফারিণ। সময়ের পালা বদলে ভালো ভালো গল্পে এবং ভিন্নধর্মী চরিত্রে ফারিণের প্রতি নির্মাতাদের আগ্রহ এবং ভরসাও বাড়ছে।

 

"