সোহেলরানা,পলাশবাড়ী(গাইবান্ধা)

  ০৩ আগস্ট, ২০২২

পলাশবাড়ীতে ১২ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা পাচ্ছেন নিবাস

ছবি : প্রতিদিনের সংবাদ

গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে ১২ জন অসচ্ছল বীর মুক্তিযোদ্ধা পাচ্ছেন বীর নিবাস। বীর মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য আবাসন নির্মাণ প্রকল্পের আওতায় গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলা প্রশাসনের বাস্তবায়নে তারা এই নিবাস পাচ্ছেন।

উপজেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, বরাদ্দকৃত ১২ জন বীর নিবাসের প্রত্যেক মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের জন্য থাকবে ৩ বেডরুম,২টি বাথরুম,১টি রান্নাঘর সাথে থাকবে খোলামেলা ১টি বারান্দা।প্রতিটি বীর নিবাসের জন্য নির্মাণ ব্যয় ধরা হয়েছে ১৩ লাখ ৪৩ হাজার ৬১৮ টাকা।এতে মোট নির্মাণ ব্যয় হবে ১ কোটি ৬১ লাখ ২৩ হাজার ৪১৬ টাকা।

পলাশবাড়ীর যে ১২ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা পরিবার পাচ্ছেন বীর নিবাস তারা হলেন,পলাশবাড়ী পৌরসভার বাশকাটা গ্রামের আব্দুল ওয়াদুদ মন্ডল,উপজেলার মহদীপুর ইউনিয়নের ছোট ভগবানপুর গ্রামের মুক্তা রানী বেগম, বেতকাপা ইউনিয়নের নান্দিশহর গ্রামের পোশাগী বেগম ও লাইলী বেগম,পবনাপুর ইউনিয়নের পূর্ব গোপিনাথপুর গ্রামের রোকেয়া বেগম ও বরকতপুর গ্রামের নুরুনবী সরদার,মনোহরপুর ইউনিয়নের ঘোড়াবান্ধা গ্রামের আব্দুস ছাত্তার ও পুটিমারি গ্রামের নুরুল আমিন,হরিনাথপুর ইউনিয়নের হরিনাবাড়ী গ্রামের মজিদা বেগম ও আব্দুস ছালাম খন্দকার, একই ইউনিয়নের তালুকজামিরা গ্রামের জিন্নুর মিয়া ও আব্দুল হান্নান।

তথ্যানুসন্ধানে সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা পরিবার পুনর্বাসনে গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার অসচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে ১২ জনের নামে বীর নিবাসের বরাদ্দ দেয় সরকার। বীর নিবাসের নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। নির্মাণ কাজ দ্রæত এগিয়েও চলছে।কাজগুলো সঠিকভাবে নিশ্চিত করতে ইউএনও ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা রেজাউল করিম সার্বক্ষণিক দেখভাল করছেন।

মনোহরপুর ইউনিয়নের ঘোড়াবান্ধা গ্রামের আব্দুস ছাত্তার দীর্ঘদিন ধরে একটি কুঁড়েঘরে থাকতেন। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা আমাদের জন্য ভাবেন তাই তিনি ভাতা দিচ্ছেন,আবার ঘরও করে দিচ্ছেন।তার জন্য দোয়া করি।

পলাশবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার কামরুজ্জামান নয়ন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য বীর নিবাস করে দেওয়ার যে উদ্যোগ নিয়েছেন এর আলোকে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা সর্বোচ্চ গুরুত্ব সহকারে যথাযথভাবে নির্মাণ কাজ নিশ্চিত করতে তদারকি করছি।

পলাশবাড়ী উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান একেএম মোকছেদ চৌধুরী বিদ্যুৎ বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাদেরকে প্রতিষ্ঠিত করার দায়িত্ব নিয়ে আবাসন প্রকল্পের মাধ্যমে তাদেরকে ভাল অবস্থানে নিয়ে আসার জন্য যে কাজগুলো করছেন তা লক্ষ্য ও উন্নয়নের ধারাবাহিকতা।নির্মাণ কাজ নিশ্চিত করতে ইউএনও সাহেবসহ আমিও তদারকি করছি।

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
পলাশবাড়ীতে,১২ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা,পাচ্ছেন নিবাস
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close