বদলগাছী (নওগাঁ) প্রতিনিধি

  ৩০ জুলাই, ২০২১

অর্ধশত পরিবার জিম্মি

বদলগাছীতে বাঁশের বেড়া দিয়ে রাস্তা অবরোধ

নওগাঁর বদলগাছীতে বাঁশের বেড়া দিয়ে রাস্তা বন্ধ করে রেখেছে এলাকার প্রভাবশালী পরিবার। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার মিঠাপুর ইউনিয়নের উত্তর মিঠাপুর কাঁঠালতলী নামক গ্রামে।

জানা যায়, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আমিনুর ইসলাম ঐ পাড়ায় যাওয়া-আসার রাস্তায় বাঁশের বেড়া দিয়ে ঘিরে দিয়েছে। এতে অসহায় হয়ে পড়েছে ঐ পাড়ার বাসিন্দারা। বাঁশের বেড়াগুলি রাস্তা থেকে দ্রুত সরিয়ে না নিলে যে কোনো সময় ঘটতে পারে বড় ধরণের সংঘর্ষ।

ঐ ঘটনার মূল হোতা আমিনুর ইসলাম ও তার আত্মীয়-স্বজন সুলতান হোসেন, বিদ্যুৎ হোসেন, রশিদুল ইসলাম ও হাসিদুল ইসলাম। তারা গ্রামের মানুষের যাতায়াতের এসব রাস্তাগুলো বাঁশ দিয়ে ঘিরে রেখেছেন। ফলে ঐ গ্রামের প্রায় ৫০ টি পরিবার গৃহবন্দি হয়ে পড়েছে।

গত ঈদুল ফিতর হতে ঈদুল আজহা পর্যন্ত ঐ গ্রামের ৫০টি পরিবারের মাঝে মধ্যযুগীয় কায়দায় জিম্মি করে রেখেছে বলে জানা গেছে। ২৯ জুলাই সরেজমিনে সাংবাদিকরা ঘটনা স্থলের ছবি তুলতে গেলে স্থানীয় দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হওয়ার ঘটনা ঘটতে দেখা গেছে।

ঐ গ্রামের বাসিন্দা মিলন হোসেন, রেজাউল ইসলামসহ শতাধিক ব্যক্তি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে গ্রামের এই রাস্তা দিয়ে লোকজন যাতায়াত করে আসছে। কিন্তু হঠাৎ করে রশিদুল ইসলামকে সরকার থেকে একটি বাড়ি তৈরি করে দেয়ার পর তাদের দাবি ভ্যান নিয়ে যাওয়ার রাস্তা দিতে হবে। ভ্যান চলাচলের রাস্তা না দিলে বিভিন্নভাবে মারপিটসহ হত্যার হুমকি ধামকি দিয়ে আসছিলো। হঠাৎ ৩/৪ মাস আগে বাঁশের বেড়া দিয়ে পুরো রাস্তা বন্ধ করে দেন। উক্ত বাঁশের বেড়ার পাশ দিয়ে যাওয়া আসার সময় ঐ বেড়ায়  একটু হাত দিলে তাদেরকে মেরে ফেলার ভয়-ভীতিও দেখাচ্ছেন তারা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শেখ হাসিনার উপহার হিসাবে একটি বাড়ি তৈরি করে দেয়া হয়েছে এই গ্রামের রশিদুল ইসলামকে। সেই বাড়িতে ভ্যান নিয়ে যাওয়ার গ্রামীণ রাস্তা না থাকায় ঐ গ্রামের কয়েকটি অসহায় পরিবারকে গৃহবন্দি করে বাড়ি ভেঙে রাস্তা তৈরি করার দাবি তাদের। তবে ঐ বাড়ি থেকে বের হওয়া বিকল্প রাস্তা থাকলেও অসহায় এক ব্যক্তির বাড়ি ভেঙে রাস্তা নেয়ার দাবি ঐ ব্যক্তিদের।

আসলে এটা দাবি নয় তারা প্রভাবশালী হওয়ার জন্য জোরপূর্বক বাড়ি ভেঙে রাস্তা চায়। ঐ প্রভাবশালীরা একটি ইটের বাড়ি ভেঙে রাস্তা চাইলে রেজাউল, রাজ্জাক, ইউনুস, বাবলু বাড়ি ভেঙ্গে রাস্তা দিতে রাজি না হওয়ায় উক্ত বিরোধের সৃষ্টি হয়।

এমতাবস্থায়, আমিনুর তার আত্মীয়-স্বজনদের সাথে নিয়ে গ্রামের সকল বাড়ির মূল দরজার সামনে বাঁশের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছে। এই সমস্যার সমাধান না হলে যে কোন সময় এখানে রক্তক্ষয়ী ঘটনা ঘটতে পারে।

রশিদুল ইসলাম বলেন, সরকার থেকে আমাকে একটি ইটের বাড়ি তৈরি করে দেয়ার পর একটি ভ্যান নিয়ে আমার সরকারি বাড়িতে আসতে চাইলে আমাকে ভ্যান নিয়ে আসতে দেননি তারা। এই জন্য আমি আমার আত্মীয় স্বজনদের নিয়ে গ্রামের সকল রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছি। আমার বাড়ি থেকে অনেক কষ্ট করে কবরস্থানের উপর দিয়ে যাতায়াত করছি। আমার বাড়ি থেকে ভ্যান নিয়ে যাতায়াতের রাস্তা দিলে সব বাঁশের বেড়া খুলে দেয়া হবে । তা না হলে মিঠাপুর কাঁঠালতলী গ্রামের লোকজন গৃহবন্দি থাকবে।

স্থানীয় মাতব্বর এমদাদুল হোসেনের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, গত রমজানের ঈদ থেকে সকল বাড়ির সদর দরজার সামনে বাঁশ দিয়ে বেড়া দিয়েছে আমিনুর ও তার সহযোগীরা। এমন কি কোনো ছোট বাচ্চারাও এক বাড়ি থেকে আরেক বাড়িতে যাওয়া-আসা করতে পারে না। উক্ত সমস্যা নিয়ে উভয় পক্ষের সাথে বহুবার মিটিং করেও কোনো সমাধান করা সম্ভব হয়নি। তারা মেম্বার-চেয়ারম্যানের কথাও মানে না।

তিনি আরও বলেন, দুই পক্ষ যেভাবে গালি গালাজ করে যে কোন মূহূর্তে এখানে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা রয়েছে।

গ্রামের অর্ধশতাধিক ব্যক্তি বলেন, ত্রিশ বছরের বেশি সময় ধরে গ্রামের লোকজন এই রাস্তা দিয়ে যাতায়াত করে আসছে। ইটের বাড়ি ভেঙে রাস্তা দিতে রাজি না হওয়ায় বাঁশ দিয়ে অসহায় পরিবার গুলোকে গৃহবন্দি করে রেখেছে।

আতাউর রহমান, আমিনুর রহমান ও রশিদুল ইসলাম পরিকল্পিত ভাবে এই অশান্তি সৃষ্টি করেছেন। ভুক্তভোগীরা গ্রামের অসহায় মানুষ আর আমিনুর ও সহযোগিরা প্রভাবশালী। তাই  প্রশাসনের হস্তক্ষেপ ছাড়া এই সমস্যার সমাধান হবে না। উক্ত সমস্যা সমাধানে ঐ এলাকার গ্রাম্য মাতব্বর ও সাধারণ লোকজন  প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন। 

পিডিএসও/এসএম শামীম

 

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
বদলগাছী,নওগাঁ
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close