ধুনটে কৃষকের গাছ কেটে নিলেন গ্রাম্য মাতব্বর

প্রকাশ : ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৬:৪৯

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় হযরত আলী নামে প্রান্তিক এক কৃষকের বাগান থেকে ৫টি মেহগনি গাছ কেটে নিয়েছেন একই গ্রামের মাতব্বর ও তার লোকজন। বুধবার সকাল ১১টার দিকে উপজেলার মথুরাপুর ইউনিয়নের হিজুলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ কৃষক হযরত আলী বুধবার গ্রাম্য মাতব্বর মোজাহার আলীসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। হযরত আলী হিজুলী গ্রামের মৃত করিম বকস সেখের ছেলে।

অভিযোগে জানা গেছে, হযরত আলী একজন প্রান্তিক কৃষক। তিনি পৈত্রিক ৬ শতক জমিতে কমপক্ষে ৩৫ বছর আগে ৫টি মেহগনি গাছ রোপণ করেছেন। ওই গাছগুলো বেড়ে বর্তমানে অনেক বড় হয়েছে। যার মূল্য লাক্ষাধিক টাকা। এ অবস্থায় একই গ্রামের মাতব্বর  মোজাহার আলী ও তার লোকজন বুধবার সকাল থেকে বাগানের গাছ কাটতে থাকেন। এ সময় গাছের মালিক হযরত আলী বাধা দিতে গেলে তাকে মারপিটের চেষ্টা করেন। তখন জীবনের ভয়ে ঘটনাস্থল থেকে কেটে পড়েন হযরত আলী। এ সুযোগে বাগান থেকে কাটা গাছের অংশ নিয়ে যান মাতব্বরের লোকজন।

এ বিষয়ে মোজাহার আলী বলেন, হযরত আলীর ওয়ারিশের কাছ থেকে ২৫ বছর আগে ওই ৬ শতক জমি কিনে নিয়েছি। সেই জমির ভেতর থেকে ৫টি মেহগনি গাছ কেটেছি। আমি হযরত আলীর কোন গাছ কেটে নেয়নি।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, কৃষকের গাছ কাটার অভিযোগটি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য একজন পুলিশ কর্মকর্তাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।

পিডিএসও/এসএম শামীম