পা হারানো রাসেলের ক্ষতিপূরণ প্রশ্নে রায় কাল

প্রকাশ : ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০০:০০

আদালত প্রতিবেদক

দুই বছর আগে রাজধানীর মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারে গ্রিনলাইন পরিবহনের একটি বাসের চাপায় এক পা হারানো রাসেল সরকারকে কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার প্রশ্নে জারি করা রুলের রায় আগামীকাল বৃহস্পতিবার।

রায় ঘোষণার জন্য এ মামলা গতকাল মঙ্গলবার বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচাপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চের কার্যতালিকায় ছিল। কিন্তু আদালত বৃহস্পতিবার তা রায়ের জন্য রাখে। এর আগে গত ৫ মার্চ রুলের ওপর শুনানি শেষ হলে ১৫ এপ্রিল রায়ের জন্য রেখে আদেশ দিয়েছিলেন আদালত। কিন্তু করোনাভাইরাস মহামারির কারণে ছুটির মধ্যে আদালত বেশ কিছুদিন বন্ধ থাকে। পরে বেঞ্চের এখতিয়ার পরিবর্তনও হয়। ফলে নির্ধারিত তারিখে আর রায় হয়নি।

মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারে ২০১৮ সালের ২৮ এপ্রিল গ্রিনলাইন পরিবহনের ধাক্কায় মারাত্মক আহত হন গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলার পার্বতীপুর গ্রামের মো. শফিকুল আসলামের ছেলে রাসেল সরকার। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক পর্যায়ে তার একটি পা কেটে ফেলতে হয়। তার আরেক পায়ের অবস্থাও ভালো নয়।

এ অবস্থায় রাসেলের পক্ষ হয়ে তাকে আইনগত সহায়তা দিতে এগিয়ে আসেন গাইবান্ধার একই এলাকার বাসিন্দা জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনের সরকারদলীয় সাবেক সংসদ সদস্য ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী উম্মে কুলসুম স্মৃতি।

রাসেল সরকারের জন্য কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে হাইকোর্টে রিট আবেদন করেন এই আইনজীবী। প্রাথমিক শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট রুল জারি করেন। পরে গত বছর ১২ মার্চ আদালত ৫০ লাখ টাকা দিতে নির্দেশ দেন। পরে ওই বছরের ১০ এপ্রিল আরেক আদেশে হাইকোর্ট প্রতি মাসে ৫ লাখ টাকা করে দিতে নির্দেশ দেন গ্রিনলাইনকে। ওই নির্দেশের পর গত বছর জুলাই পর্যন্ত তিন দফায় মোট সাড়ে ১৩ লাখ টাকা দেয় গ্রিনলাইন কর্তৃপক্ষ। পরে আপিল বিভাগ ওই আদেশ স্থগিত করে দেন।

এরপর আর কোনো টাকা দেয়নি গ্রিনলাইন পরিবহন। এ অবস্থায় কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া প্রশ্নে রুলের ওপর চূড়ান্ত শুনানি হয়। কাল বৃহস্পতিবার সেই রায় জানা যাবে।

 

 

"