রাজিবুল ইসলাম

  ১১ অক্টোবর, ২০২১

ইসমাইলকে শাস্তি না দিলেও হতো

টোকিও অলিম্পিকে ইসমাইলকে বাদ দিয়ে বাংলাদেশ অ্যাথলেটিকস ফেডারেশন অলিম্পিকের জন্য বেছে নিয়েছিল জহির রায়হানকে। খবরটা জানতে পেরে তারই হতাশা প্রকাশ করেছিলেন ইসমাইল। সে কারণে এবার তাকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধই করে দিয়েছে ফেডারেশন। তবে ফেডারেশন ইসমাইলকে এই শাস্তি না দিলেও পারত বলে মনে করেন বাংলাদেশ অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনের সভাপতি এ এস এম আলি কবির। শাস্তি দিয়ে কোনো কিছু সমাধান হয় না বলেও জানান তিনি।

এ এস এম আলি কবির গতকাল প্রতিদিনের সংবাদকে বলেন, ‘এসব ব্যাপারে ফেডারেশন শাস্তি না দিলেও পারত। ওর সমস্যা সমাধানের জন্য আমি জন্য কাজ করব। কীভাবে তার শাস্তি কমিয়ে আনা যায়। আসলে শাস্তি দিয়ে কখনো ফলাফল হয় না। আমার কর্ম জীবনে আমি কখনো কাউকে কখনো শাস্তি দিতাম না। ইসমাইল ভালো ছেলে আমরা ওর পাশে আমরা আছি।’

বাংলাদেশ অ্যাথলেটিক্স ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক আবদুর রকিব মন্টু গতকাল প্রতিদিনের সংবাদকে বলেন, ইসমাইল সিলেকশন কমিটি ও অফিশিয়াল কিছু বিষয়ের বিরুদ্ধে কথা বলেছে তাই তাকে এই শাস্তি দেওয়া হয়। ফেডারেশনের ‘ভাবমূর্তি’ ক্ষুণ্ন করার কারণেই মূলত তাকে কারণ দর্শাও নোটিশ দেওয়া হয়েছিল। তবে এরপর পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি তাকে এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত জানান।

‘টোকিও অলিম্পিকে বাংলাদেশের প্রতিনিধি পাঠানোর বিরুদ্ধে সে কথা বলেছে। ফেডারেশনের সিলেকশন কমিটিকেও সে চ্যালেঞ্চ জানায়। গণমাধ্যমেও ফেডারেশনের বিরুদ্ধে সে বিভিন্ন কথা বলেছে। তাই তাকে এই শাস্তি দেওয়া হয়েছে।’ কর্তৃপক্ষের অনুমতি না থাকায় এই বিষয়ে কথা বলতে পারেননি ইসমাইল।

টানা চারবারের দেশের দ্রুততম মানব তিনি। গত ২ অক্টোবর থেকে আগামী এক বছরের জন্য তাকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এ সময় ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক সব ধরনের খেলা থেকে দূরে থাকতে হবে তাকে। গত টোকিও অলিম্পিকের জন্য ফেডারেশন তিনজনকে প্রাথমিকভাবে বাছাই করেছিল। সেখানে জহিরের সঙ্গে ছিলেন ইসমাইল ও শিরিন আক্তার। শেষ পর্যন্ত জহিরই চূড়ান্ত মনোনয়ন পান। এরপরই ইসমাইল ফেডারেশনের বাছাই প্রক্রিয়া নিয়ে প্রশ্ন তুলে বসেন। তখন তিনি বলেছিলেন, ‘যথাযথ প্রক্রিয়া মেনে অলিম্পিকের বাছাই হয়নি। আমার প্রতি অবিচার করা হয়েছে।’ সে কারণেই এবার শাস্তির মুখে পড়তে হলো তাকে।

ইসমাইলের সামনে অবশ্য শাস্তি কমানোর আপিলের সুযোগটা খোলা থাকছে। গত এপ্রিলেই তিনি দেশের সবচেয়ে দ্রুত মানবে পরিণত হন তিনি। তবে এ কীর্তি তার জন্যে নতুন নয়। এর আগের টানা তিন বছরও দ্রুততম মানব ছিলেন তিনিই। এরপর ইরানে একটি আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতাতেও খেলতে যান তিনি। কিন্তু শেষমেশ অলিম্পিকে আর যাওয়া হয়নি তার। যে কারণেই হতাশা প্রকাশ করেন তিনি, এরপর তো এবার নিষিদ্ধই হতে হলো তাকে।

 

 

"

প্রতিদিনের সংবাদ ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • পাঠক প্রিয়
close